নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে দেশ জুড়ে বিক্ষোভ অব্যাহত। সাধারণ মানুষের মত পথে নেমেছে বিজেপি বিরোধী দলগুলিও। ক্রমেই তৈরি হচ্ছে সরকার বিরোধী হাওয়া। এদিকে নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে পাল্টা প্রচার চালাচ্ছে বিজেপিও। এবার সিএএ নিয়ে জনসমর্থন গড়ে তুলতে এক নতুন পন্থা নিল গেরুয়া শিবির। খুব শীঘ্রই দেশজুড়ে চালু করা হবে টোল ফ্রি নম্বর। যেখানে মিস কল দিয়ে নাগরিকত্ব আইনের প্রতি সমর্থন জানাতে পারবে দেশের মানুষ।

বিজেপির সাধারণ সম্পাদক অনিল জইন জানান, এই টোল ফ্রি নম্বরে নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে নিজেদের সমর্থনের কথা জানাতে পারবেন মানুষ। ১০ দিনের জন্য এই কর্মসূচি নেওয়া হতে চলেছে। যার সূচনা করবেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। আশা করা হচ্ছে আগামী ৫ জানুয়ারি এই টোল ফ্রি নম্বরের সূচনা করতে পারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। 

আগামী ৫ জানুয়ারি দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে আসতে পারেন অমিত শাহ। সেখানেই ১০ দিনের এই কর্সূচির সূচনা হতে পারে। আগামী ৫ থেকে ১৫ জানুয়ারি ১০ দিনের এই কর্মসূচিতে দলের নেতৃত্ব এবং কেন্দ্রীয় নেতারা জনমত তৈরি করতে দেশের নানা অংশে যাবেন বলে জানিয়েছেন অনিল জইন। আপাতত তিন কোটি পরিবারের সমর্থন আদায় করাই লক্ষ্য গেরুয়া শিবিরের। সোশ্যাল মিডিয়াতেও এই আইনের পক্ষে যাতে জনসমর্থন গড়ে তোলা হয় তারও আবেদন করেছেন জইন। 

বিরোধী দলগুলি নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে লাগাতার প্রচার চালাচ্ছে। তার পাল্টা হিসাবে ইতিমধ্যে বিজেপি নেতা ও কর্মীরা  প্রচার ও জনসভা শুরু করেছেন সিএএ-র  সমর্থনে।