ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট করে প্রশ্নের মুখে বিজেপির মহিলা মোর্চার এক নেত্রী। ফেসবুকে একটি পোস্ট শেয়ার করেন বিজেপির মহিলা মোর্চার ওই নেত্রী, যেখানে তিনি লিখেছেন, হিন্দুদের উচিত মুসলিম মহিলাদের ঘরের ভিতর প্রবেশ করে তাঁদের গণধর্ষণ করা। 

গত সপ্তাহে তাঁর ফেসবুক পোস্ট-এ এমন আপত্তিকর মন্তব্যের জেরে নিন্দায় সরব হয়েছে সব মহল। উত্তরপ্রদেশের রামকোলার বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী সুনিতা সিং গৌড় ফেসবুকে লেখেন যে, 'হিন্দু ভাইদের উচিত একটা ১০ জনের একটা  দল তৈরি করা এবং মুসলিম মা-বোনেদের সর্বসম্মুখে গণধর্ষণ করা এবং তারপর তাঁদের ভরা বাজারে ফাঁসি দিয়ে দেওয়া, যাতে বাকি সকলে দেখতে পায়।' এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। তাঁর আরও দাবি, দেশ বাঁচাতে এছাড়া আর কোনও সমাধান হতে পারে না।  যদিও গত ২৭ জুন এই ফেসবুক পোস্টটি সরিয়ে দেন তিনি। 

 

কিন্তু তার মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় তাঁর এই পোস্টটি। স্বভাবতই নেটিজেনদের অধিকাংশই নিন্দায় সরব হয়ে ওঠেন। বিষয়টি বিজেপি মহিলা মোর্চার সর্বভারতীয় সভানেত্রী বিজয়া রাহাতকর-এর কানে গেলে বিষয়টি র নিন্দা করেন তিনি। তিনি একটি বিষয় নিশ্চিত করে জানিয়ে দেন যে, এই ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য কখনওই বরদাস্ত করা হবে না। আর এই কারণেই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।