উৎসবের মরসুমেই ফের এক বড়সড় দুর্ঘটনা। যার জেরে নদীবক্ষে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছেন অসংখ্য মানুষ। মর্মান্তিক এই ঘটনা অসমের তেজপুরের জিয়া ভারালি নদীতে। জানা গিয়েছে দেশি পদ্ধতিতে তৈরি নৌকাটিতে অন্তত ৮০ জন সওয়ারি ছিলেন। এমনকী নৌকায় মানুষের সঙ্গে সঙ্গে মোটরবাইক এবং গবাদি পশু-দেরও চাপানো হয়েছিল। 

অসমের শোন্তিপুর জেলার বিহিয়া গাঁও থেকে নৌকায় চেপে সওয়ারিরা নদীর অপরপ্রান্তে এক হাটে যাচ্ছিল। পাঁচ মাইল এলাকার এই হাটটি তেজপুরের কাছে। ফি সপ্তাহেই বৃহস্পতিবার এই হাটে অন্তত কয়েক হাজার মানুষ ভিড় করেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে নৌকাটিতে বহন ক্ষমতার থেকে বেশি যাত্রী ছিল। 

অতিরিক্ত যাত্রীর চাপেই মাঝ নদীতে নৌকাটির সামনের অংশ উপরের দিকে উঠে যায়। এরপরই তা উল্টে পড়ে। বেশকিছু যাত্রী সাঁতরে পারে উঠে এলেও বহু সওয়ারির এখনও কোনও খোঁজ নেই। ঘটনাস্থলে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর লোকেরাও গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। কিন্তু রাত হয়ে যাওয়ায় উদ্ধারকাজ আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।