শনিবার বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের একটি দল টহল দেওয়ার সময় গুজরাতের কচ্ছের রন এলাকার হারামি নালা এলাকায় দুটি পরিত্যক্ত নৌকো উদ্ধার করে। জানা গিয়েছে ওই নৌকো দুটি পাকিস্তানের। ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত এলাকায় কচ্ছের রনে পরিত্যক্তভাবে ছিল ওই দুটি পাকিস্তাানি নৌকো। এরপরই দুটি নৌকাকে আটক করে বিএসএফ জওয়ানরা।

বিএসএফ-এর একজন শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন। শনিবার বিকেল ৬.৩০ মিনিট নাগাদ। বিএসএফ-একটি টহলদারী দল কচ্ছের রন এলাকা থেকে দুটি একক ইঞ্জিন যুক্ত পাকিস্তানি নৌকো আটক করে। জানা গিয়েছে ওই পরিত্যক্ত নৌকো দুটি মাছ ধরার কাজে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।  

আরও পড়ুন- গড়লেন ইতিহাস, দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসাবে বাহরিন সফরে মোদী

দুটি একক ইঞ্জিন-যুক্ত পাকিস্তানি নৌকোগুলি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার হওয়ার পর শুরু হয় একটি তল্লাশি অভিযান। শেষ পাওয়া খবর অনুসারে সেই তল্লাশি অভিযান এখনও চলছে বলে খবর। যদিও এখনও পর্যন্ত সেখান থেকে কোনও সন্দেহভাজবন বস্তু উদ্ধার করা হয়নি বলে জানা গিয়েছে। 

আরও পড়ুন- সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে মোদী, ভূষিত হলেন সেদেশের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মানে

প্রসঙ্গত কচ্ছের রনের এই হারামি নালা স্যর ক্রিক অঞ্চলের একটি স্বচ্ছ ও অগভীর একটি জলের চ্যানেল। আর সেই অঞ্চল থেকেই বিএসএফ জওয়ানরা পাকিস্তানি ওই পরিত্যক্ত নৌকোটি বাজেয়াপ্ত করে বলে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের মে মাসে এই এলাকা থেকেই একটি পাকিস্তানের মাছ ধরার নৌকো ধরেছিল, কিন্তু সেবার নৌকোর মাঝি সুকৌশলে পালিয়ে গিয়েছিল।