কর্নাটকের আস্থাভোটে পরাজয়ের পর প্রায় মাস দেড়েক কেটে গিয়েছে। ফের সংবাদ শিরোনামে ফিরলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী। তবে কোনও রাজনৈতিক পদক্ষেপের জন্য নয়, বরং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে অদ্ভূত আক্রমণ করে। তাঁর মতে বিক্রের চাঁদে  নামার দিন বেঙ্গালুরুতে ইসরো-র কেন্দ্রে মোদীর উপস্থিতির জন্যই বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বিজ্ঞানীদের।

এদিন এক সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, সম্ভবত নরেন্দ্র মোদীর ইসরো কেন্দ্রে পা রাখাটাই ইসরোর বিজ্ঢানীদের জন্য দুর্ভাগ্য বয়ে এনেছিল। এখানেই থামেননি, তাঁর আরও অভিযোগ, চন্দ্রযানের উৎক্ষেপনের পিছনে তিনিই ছিলেন, এটা দেখাতেই গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে মোদী বেঙ্গালুরুতে এসেছিলেন।   

তিনি আরও জানান, চন্দ্রযান অভিযানের পিছনে কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর কোনও অবদানই নেই। বিজ্ঞানীরা ১০-১২ বছর ধরে কঠোর পরিশ্রম করেছেন। আর প্রকল্পটি অনুমোদন করেছিল ইউপিএ মন্ত্রীসভা, ২০০৮-০৯ সালে।

তবে বিজেপি জেডিইউ নেতার এই মন্তব্যের পর তাঁকে ছেড়ে কথা বলেনি। কর্নাটকের বিজেপি নেতা টম ভাড়াক্কন বলেছেন, কুমারস্বামীর মন্তব্য থেকেই স্পশষ্ট পরাজয়ের ক্ষত তাঁর এখনও শুকোয়নি। আরও দাবি করেন, বিক্রমের সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর বিজ্ঞানীদের আলিজ্ঞন করে প্রধানমন্ত্রী যে রাষ্ট্রনায়কোচিত কাজ করেছেন, তার তুলনা নেই। তাঁর জন্যই একন বিজ্ঞানীরা দেশে জাতীয় নায়কের মর্যাদা পাচ্ছেন।