রাজ্যপাল কি সাক্ষীগোপাল?- সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় আসা এই প্রশ্নকে ঘিরেই শুরু হয়েছে জল্পনা। ঘটনাটি বিহারের। বিহারের পাবলিক সার্ভিস কমিশন-এর মূল পরীক্ষায় বিহারের রাজ্যপাল কাঠের পুতুল কিনা সেই প্রশ্নই করা হয়েছে সাধারণ জ্ঞানের দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্নে। 

বিহারের রাজ্যপালের ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন করতে গিয়েই এইভাবে প্রশ্ন উত্থাপন করার জন্যই শুরু হয়েছ জল্পনা। এই ঘটনার প্রসঙ্গে বিহারের পাবলিক সার্ভিস কমিশনের নিয়ন্ত্রক অমরেন্দ্র কুমারের কথায়, এর আগেও এই ধরণের প্রশ্ন পরীক্ষায় এসেছে বলে জানান তিনি, তাঁর আরও দাবি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় কী ধরণের প্রশ্ন দেওয়া হয়েছে তা কমিনের কর্মকর্তাদের কোনওভাবেই জানার কথা নয়।  

হিমাচল প্রদেশে বাড়ি ভেঙে মৃত ৭, ধ্বংসস্তূপে আটকে অন্তত ৩০ জন সেনা জওয়ান

বিয়ের জন্য মিথ্যা গল্প ফেঁদে বস-এর ১০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে শ্রীঘরে যুবক

কোথাও বন্যা, কোথাও খরা- প্রকৃতির খামখেয়ালিপনায় একই সময়ে ভিন্ন পরিস্থিতির সাক্ষী দেশের এই ৬ জায়গা

প্রসঙ্গত, সমসাময়িককালে বিহার সরকারের সঙ্গে রাজভবনের মধ্যে একাধিক বিরোধ-এর ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারও একাধিকবার হস্তক্ষেপ করেছে। এমনকী অনেকে রাজ্য়পালের পদটিও অপসারণের দাবি তুলেছে। যদিও এই প্রসঙ্গে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীল নীতিশ কুমার কোনও মন্তব্য করেননি। তবে যাই হোক না কেন রাজ্যপালকে এইভাবে সাক্ষীগোপাল বা কাঠের পুতুল বলে মন্তব্য করা কতখানি যুক্তিযুক্ত সেই নিয়ে সরব বিশিষ্ট মহল।