Asianet News BanglaAsianet News Bangla

গতি পেল বিজেপির 'মিশন গোয়া', কংগ্রেসকে বড় ধাক্কা দিয়ে ৮ বিধায়কের যোগ গেরুয়া শিবিরে

২০১৯ সালের শুরুতে, ১০জন কংগ্রেস বিধায়ক এবং মহারাষ্ট্রবাদী গোমান্তক পার্টির (এমজিপি) দুইজন বিধায়ক একইভাবে বিজেপিতে যোগ দেন। কংগ্রেস বিধায়করা গোয়ায় তাদের দল ছেড়েছেন যখন তারা কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর পর্যন্ত 'ভারত জোড়ো যাত্রা' বের করছেন।

Congress Collapses In Goa: 8 Of 11 MLAs Join BJP bpsb
Author
First Published Sep 14, 2022, 3:40 PM IST

গোয়া কংগ্রেসকে বড় ধাক্কা দিয়ে দলের ৮ বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ নাম প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দিগম্বর কামাত এবং মাইকেল লোবো। এঁরা নির্বাচনের ঠিক আগে বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়ে ছিলেন। ফের দল পরিবর্তন করেছেন তাঁরা। কংগ্রেস বিধায়ক দিগম্বর কামাত, মাইকেল লোবো, ডেলিলা লোবো, রাজেশ ফালদেসাই, কেদার নায়েক, সংকল্প আমনকার, অ্যালেক্সো সিকুইরা এবং রুডলফ ফার্নান্দেস আজ বিজেপিতে যোগ দেন। এই বিধায়করা গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্তের সঙ্গে দেখা করেছেন।

মাইকেল লোবো সাংবাদিকদের জানান যে প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং মুখ্যমন্ত্রী  প্রমোদ সাওয়ান্তের হাতকে শক্তিশালী করতে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তাঁরা। মিশন 'কংগ্রেস ছাড়ো, জোড়ো বিজেপি'। কংগ্রেস এমন এক সময়ে এই ধাক্কা খেয়েছে যখন সারা দেশে ভারত জোড়ো যাত্রা বের করা হচ্ছে, যেখানে রাহুল গান্ধীও রয়েছেন।

২০১৯ সালের শুরুতে, ১০জন কংগ্রেস বিধায়ক এবং মহারাষ্ট্রবাদী গোমান্তক পার্টির (এমজিপি) দুইজন বিধায়ক একইভাবে বিজেপিতে যোগ দেন। কংগ্রেস বিধায়করা গোয়ায় তাদের দল ছেড়েছেন যখন তারা কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর পর্যন্ত 'ভারত জোড়ো যাত্রা' বের করছেন। একদিকে কংগ্রেস এই যাত্রা থেকে তাদের হারানো মাঠ ফিরে পেতে চাইছে, অন্যদিকে একই দলের বিধায়করা দলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। গোয়ায় ৪০টি বিধানসভা আসন রয়েছে, যার মধ্যে ১১টি কংগ্রেসের এবং ক্ষমতাসীন এনডিএ-র ২৫টি।

Congress Collapses In Goa: 8 Of 11 MLAs Join BJP bpsb

মার্চ মাসে সরকার গঠনকারী ভারতীয় জনতা পার্টির সাথে কংগ্রেস বিধায়ক দলের বিধায়কদের যোগদানের সঙ্গে সঙ্গে উপকূলীয় রাজ্যে শাসক দলটির ৪০ বিধায়কের মধ্যে ৩৩ জন থাকবে, তাদের মধ্যে ২০ জন বিজেপির টিকিটে জয়ী হবেন, ২ জন মহারাষ্ট্রবাদী গোমান্তক পার্টি থেকে। আর তিনজন নির্দল বিজেপিকে সমর্থন করেছিলেন।

আজ সকালে, বিধানসভা অধিবেশন না থাকায় স্পিকারের সাথে বিধায়কদের বৈঠক শুরু হয়। রাজ্য বিজেপি প্রধান সদানন্দ শেট তানাভাদে তখন সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন যে তারা দলে যোগ দিচ্ছেন।

গোয়া ফরোয়ার্ড পার্টির সভাপতি বিজয় সরদেসাই এক বিবৃতিতে বলেছেন, "যে আটজন কংগ্রেস বিধায়ক, সমস্ত রাজনৈতিক স্বচ্ছলতা, মৌলিক শালীনতা এবং সততার বিরুদ্ধে, অর্থের লোভ এবং ক্ষমতার জন্য বিজেপিকে অনুসরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তারা আজ নির্লজ্জ স্বার্থপরতা, লোভ দেখাচ্ছে।" 

বিজয় সরদেসাই আরও বলেন, “বিজেপি জনগণের আদেশের জন্য নয়, প্রতারণার কারণে ক্ষমতায় রয়েছে। গণতন্ত্র ও সংসদীয় রাজনীতিকে ছিন্নভিন্ন করেছে বিজেপি, গোয়াকে উপহাস করা হয়েছে, জনপ্রতিনিধিদেরকে গমের বস্তার মতো মাল হিসেবে গণ্য করা হয়েছে। চড়া দামে কিনে অসাধু ও প্রতারক বিধায়কেরা পশুর মতো নিজেদের কাছে বিক্রি করেছে।” 

পাহাড়ের ঢালে ক্রিকেটার বেদা কৃষ্ণমূর্তিকে প্রপোজ করলেন ক্রিকেটার অর্জুন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভরে গেল ভালোবাসার ছবি

সিডনিতে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের লেখা গোপন চিঠি, খোলা যাবে না একটি নির্দিষ্ট সময়কাল পর্যন্ত

'মমতার সরকারের অত্যাচার ও হিংস্রতা গণতান্ত্রিক অধিকার হরণের চরম সীমায় পৌঁছে গেছে', তোপ দাগলেন রবিশঙ্কর প্রসাদ

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios