দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লক্ষ ছাড়াল। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া হিসেব অনুযায়ী গত সাত দিনে দেশে আক্রান্ত হয়েছে তিন লক্ষের বেশি মানুষ। গত ২৩ জুলাই দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লক্ষ ছাড়িয়েছিল। 

শুক্রবার সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১২লক্ষ ৮৭  হাজার ৯৪৫। আর এদিন বিকেলেই সেই সংখ্যা ১৩ লক্ষের গণ্ডি অতিক্রম করেছে। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় আন্ধ্র প্রদেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজারেরও বেশি মানুষ। আর তামিলনাড়ুতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬ হাজারেও বেশি মানুষ। জন্মু ও কাশ্মীরে আক্রান্তের সংখ্যা ৩০০ বেশি। এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত রাজ্যগুলির তালিকায় শীর্ষ রয়েছে মহারাষ্ট্র। দ্বিতীয় স্থানে তামিলনাড়ু আর তৃতীয় স্থানে দিল্লি। গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিন সকাল পর্যন্ত স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজারেরও বেশি বলে জানান হয়েছিল। মৃতের ক্রমতালিকায় ভারতের স্থান রয়েছে ৬ নম্বরে। আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ব্রাজিল, মেক্সিকো আর ইতালি। আক্রান্ত দেশের ক্রমতালিকায় ভারতের স্থান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পরেই। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যন অনুযায়ী জুলাই মাসের শুরু থেকেই  দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষ পার করেছিল। তারপর থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে গেছে। গত শুক্রবারই আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লক্ষে পৌঁছেছিল। এই পরিস্থিতিতে তেলাঙ্গনার এক আধিকারিক রাজ্যে গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়েছে বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে সুস্থ হওয়ার পরিসংখ্যন রীতিমত সন্তোষ জনক। মৃত্যুর হারও অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেকটাই কম বলেও দাবি করেছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী।