কয়েকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল, যে হ্যাক করা হয়েছে করোনা টিকা নথিভুক্তকরণ  কোউইন অ্যাপ। আর সেখান থেকে নাকি ১৫ কোটি গ্রাহকের তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে হ্যাকাররা। এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পরই শোরগোল পড়ে যায় গোটা দেশে। তড়িঘড়ি বিষয়টি খতিয়ে দেখতে পদক্ষেপ করে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। তারপরই কোউইন অ্যাপ হ্যাক হওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যে বলে দাবি করে তারা। 

করোনা টিকা নেওয়ার জন্য কোউইন অ্যাপে নাম নথিভুক্ত করতে হয় দেশবাসীকে। সেই অনুযায়ী টিকাকরণের জন্য ডাকা হয় তাঁদের। আর এবার সেই অ্যাপ হ্যাক করা হয়েছে বলে জানা যায়। এদিকে তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টি জানার পরই চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলেন নাগরিকরা। তখনই আসরে নামে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। 

এরপর স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, "কোউইনে টিকা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য নিরাপদ ও সুরক্ষিত ভাবে রয়েছে। কোনও তথ্যই পাচার হয়নি। বৈদ্যুতিন এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের কম্পিউটার ইমারজেন্সি টিম বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছে। কিছু সংবাদমাধ্যমে এই ধরনের অসত্য তথ্য পরিবেশন করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, ওই রিপোর্ট সম্পূর্ণ ভুয়ো। তবে কোনও রকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না সরকার। তাই এ ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে বৈদ্যুতিন এবং প্রযুক্তি মন্ত্রকের বিশেষজ্ঞ দল।" 

ডার্ক লিক মার্কেট নামে একটি হ্যাকার গ্রুপের তরফে একটি টুইট করা হয়েছিল। সেখানে তারা দাবি করে যে, কোউইন অ্যাপে থাকা ১৫ কোটি ভারতীয়র তথ্য তাদের কাছে রয়েছে। প্রায় ৮০০ ডলারের পরিবর্তে সেই তথ্য তারা ফের বিক্রি করে দিচ্ছে। আর এই টুইট প্রকাশ্যে আসার পরই চিন্তায় পড়ে যান দেশবাসী। যদিও ওই খবর সম্পূর্ণ অসত্য এবং ভিত্তিহীন বলে দাবি করে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। 

এ প্রসঙ্গে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এক সাইবার সুরক্ষা বিশেষজ্ঞ রাজশেখর রাজাহারিয়া বলেন, "হ্যাকিং গ্রুপের ওই ওয়েবসাইট সম্পূর্ণ ভুয়ো। আসলে তারা বিটকয়েন নিয়ে বিভিন্ন কাজ করে থাকে। আসলে কোউইন কোনওভাবেই হ্যাক হয়নি। হ্যাকার গ্রুপটি যে দাবি করেছে তা পুরোপুরি মিথ্যে। মানুষের এই ধরনের খবরের উপর বিশ্বাস না করাই ভালো। কোউইন অ্যাপে সব তথ্য সম্পূর্ণ সুরক্ষিত রয়েছে।"

এদিকে কোউইন অ্যাপের নিরাপত্তা নিয়ে আগেও প্রশ্ন উঠেছিল। গত মাসেই এ প্রসঙ্গে কেন্দ্র জানিয়েছিল, এই অ্যাপ অত্যন্ত নিরাপদ এবং সুরক্ষিত। টিকা সংক্রান্ত তথ্যই হোক বা গ্রাহকদের কোনও তথ্য, কোনও কিছুই অসুরক্ষিত নয়। এই অ্যাপ হ্যাক করা সম্ভব নয়।