ফের কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার জঙ্গি দমন অভিযান। আর তাতেই সাকসকালে নিকেশ হল ৩ সন্ত্রাসবাদী। ভারতীয় বাহিনী গোপনসূত্রে খবর পেয়ে শনিবার ভোরে এই অভিযান চালায়। তাতেত সোপিয়ানের আমসিপোড়া গ্রামে লুকিয়ে থাকা ৩ জঙ্গিকে খতম করল যৌথ বাহিনী।

 

 

আমসিপোড়া গ্রামে কয়েকজন জঙ্গির লুকিয়ে থাকার খবর পেয়ে শেষরাতে সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনী গ্রামটি ঘিরে ফেলে। সেনার ৬২ রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ছাড়াও এতে অংশ নেয় সিআরপিএফ ও কাশ্মীর পুলিশ। শেষ পাওয়া খবরে সংঘর্ষ  এখনও চলছে বলেই জানা গিয়েছে। গুলির লড়াই চলছে দু'তরফের মধ্যে। তাতে মনে করা হচ্ছে ওই এলাকায় এখনও বেক কয়েকজন জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে। এদিনের অভিযানে ৩ সেনা জওয়ানেরও জখম হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। 

 

 

শুক্রবার ভোরেও কুলগামে ৩ জঙ্গিকে নিকেশ করেছিল ভারতীয় সেনা।  নিহতদের মধ্যে একজন জৈশের শীর্ষস্থানীয় কমান্ডার রয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। ওই জঙ্গি আইইডি বিশেষজ্ঞ ছিল বলেও কাশ্মীর পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। সামনেই কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের বর্ষপূর্তি। এই অবস্থায় উপত্যকায় জঙ্গি কার্য়কলাপ যে বৃদ্ধি পাবে তেমন একটা গোয়েন্দা  রিপোর্ট ইতিমধ্যে জমা পড়েছে সরকারের কাছে। তারপর থেকে নিয়মিত অভিযান চলছে কাশ্মীরে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এদিন ভারতীয় নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে  খবর ছিল যে আমসিপোড়া এলাকায় গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী ৷ এবং বেশ বড় কোনও হামলার ছক কষছে তারা৷ এরপর স্থানীয় পুলিশ ও সিআরপিএফ এর সঙ্গে যৌথভাবে অভিযান চালায় নিরাপত্তারক্ষীরা৷ জঙ্গিদের এখনও কয়েকজন  একটা বাড়িতে লুকিয়ে রয়েছে এবং সেখান থেকে নিরাপত্তারক্ষীদের উপর হামলা চালাচ্ছে।

আরও পড়ুন: রাজস্থানে এবার প্রকাশ্যে বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্বও, গেহলট-বসুন্ধরা আঁতাত নিয়ে আক্রমণাত্মক পাইলট

আরও পড়ুন: করোনায় সবচেয়ে বেশি সুস্থতার হার ভারতের, বিশ্বমঞ্চে এবার সগর্বে দেশের জয়গান মোদীর

এদিকে কাশ্মীরের আইজির আইজি বিজয় কুমার জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনীর তরফে জঙ্গি কমান্ডারদের একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আগামী মাসে তাদেরকে খুঁজে বের করে নিকেশ করা হবে। জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছে গত জুন মাসে কাশ্মীর উপত্যকায় বিভিন্ন এনকাউন্টারে ৪৮ সন্ত্রাববাদীর মৃত্যু হয়েছে।