দিল্লির রানি ঝাঁসি রোডের আনাজমাণ্ডির এক কারখানায় ভোররাতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত ৪৩ শ্রমিকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই সংখ্যা আরও বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। শীতের ভোরে আরামের ঘুমের মধ্যেই চিরঘুমে চলে যান এই শ্রমিকরা। আরও বহু শ্রমিককে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই মর্মান্তিক ঘটনা নিয়ে গভীর উদ্বেগ ও শোক প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন - দিল্লিতে ভোররাতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা, মৃত ৪৩

প্রধানমন্ত্রী টুইট করে বলেছেন, 'দিল্লির রানী ঝাঁসি রোডের আনাজমান্ডির অগ্নিকাণ্ড অত্যন্ত ভয়াবহ ঘটনা। যারা তাঁদের প্রিয়জনদের হারালেন, আমি তাঁদের পাশে রয়েছি। আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। কর্তৃপক্ষ অকুস্থলে সম্ভাব্য সব রকম সহায়তা প্রদান করছে।'

টুইট করে শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-ও। তিনি বলেছেন, 'নয়াদিল্লির অগ্নিকাণ্ডে মূল্যবান প্রাণ যাওয়াটা অত্যন্ত দুঃখজনক। স্বজনহারা হলেন যাঁরা তাঁদের প্রতি গভীর শোকপ্রকাশ করেছি। আশা করি আহতরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। কর্তৃপক্ষ যাতে সব রকম সহায়তা প্রদান করে তার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।'

আরও দেখুন - ঘুমের মধ্যেই চিরঘুমে ৪৩ শ্রমিক, দেখুন গ্রাউন্ড জিরো থেকে দিল্লির ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ছবি

শোকপ্রকাশ করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল-ও। তিনি টুইট করে বলেন, 'অত্যন্ত দুঃজনক ঘটনা। উদ্ধারকাজ চলছে। দমকলকর্মীরা যথাসম্ভব চেষ্টা করছেন। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।'

ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন দিল্লির মন্ত্রী ইমরান হুসেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, 'ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক। এর তদন্ত হবে। যাদের জন্য এই ঘটনা ঘটল, তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।'