Asianet News Bangla

বিচার না পেয়ে চিৎকার করে মুখে 'তারিখ পে তারিখ', আদালতের আসবাব ভাঙলেন ব্যক্তি

একটি মামলার শুনানি চলছিল সেখানে। কিন্তু, হঠাৎই চিৎকার করে ওঠেন রাকেশ নামের এক ব্যক্তি। সানি দেওলের সেই বিখ্যাত সংলাপ শোনা যায় তাঁর মুখে। 

Delhi man shouts tareekh par tareekh over delay in justice bmm
Author
Kolkata, First Published Jul 22, 2021, 6:51 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

'দামিনী' ছবিতে সানি দেওলের সেই সংলাপের কথা হয়তো অনেকেরই মনে আছে। যেখানে একটি মামলার রায় না দিয়ে বিচারক শুনানির জন্য একের পর এক তারিখ দিয়ে যাচ্ছেন। আর আদালতে দাঁড়িয়ে চিৎকার করে সানি দেওল বলছেন, "শুধু তারিখের পর তারিখ দেওয়া হচ্ছে কিন্তু বিচার পাওয়া যাচ্ছে না।" এবার আর সিলভার স্ক্রিনে নয়, বাস্তবে এই ঘটনার স্বাক্ষী থাকল দিল্লি কারকারদুমা আদালত। 

আরও পড়ুন- 'জীবনের পথে এগিয়ে চলো', উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অভিনন্দন মুখ্যমন্ত্রীর

কারকারদুমা আদালতের ৬৬ নম্বর ঘর। একটি মামলার শুনানি চলছিল সেখানে। কিন্তু, হঠাৎই চিৎকার করে ওঠেন রাকেশ নামের এক ব্যক্তি। সানি দেওলের সেই বিখ্যাত সংলাপ শোনা যায় তাঁর মুখে। চিৎকার করে বলে ওঠেন, "তারিখ পে তারিখ (তারিখের পর তারিখ)"। আর এই চিৎকার করেই ক্ষান্ত হননি রাগের চোটে আদালতে থাকা আসবাব ও কম্পিউটার ভেঙে দেন তিনি। তিনি এতটাই রেগে গিয়েছিলেন যে আদালতে বিচারকের বসার জায়গাও ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা করেন। ঠিক সেই সময় তাঁকে ধরে ফেলে পুলিশ।

আরও পড়ুন- চুল-দাড়ি কাটা নেই, তাঁবুতেই প্রস্রাব - ১৫ মাস পরে উদ্ধার করোনার ভয়ে গৃহবন্দি পরিবার

জানা গিয়েছে, রাকেশ দিল্লির শাস্ত্রী নগরের বাসিন্দা। ২০১৬ সাল থেকে তাঁর একটি মামলা ওই আদালতে চলছে। সেই ওই মামলার শুনানির জন্য আদালতে হারিজ হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, শুনানি শেষে ফের অন্য একটি তারিখ দেওয়ার নিজের মাথার ঠিক রাখতে পারেননি। সানি দেওলের সংলাপ বলে আসবাব ও কম্পিউটার ভাঙার চেষ্টা করেন।   

আরও পড়ুন- পুরুলিয়ায় ভাড়ায় মিলছে জব কার্ড, মৃত ব্যক্তির কার্ড থেকে উঠছে টাকাও

এরপর তাঁকে গ্রেফতার করে ফরশবাজার থানার পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৬, ৩৫৩, ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios