মঙ্গলবার ফল বেরিয়েছে দিল্লি বিধানসভা ভোটের। প্রত্যাশা মতই চারদিকে জয়জয়কার আম আদমি পার্টির প্রার্থীদের। ৭০ আসনের দিল্লি বিধানসভায় এবার আপের বিধায়ক সংখ্যা থাকছে ৬২। গত বারের তুলনায় মাত্র ৫টি আসন হাতছাড়া হয়েছে কেজরিওয়ালের দলের। নয়াদিল্লি আসন থেকে জিতে দিল্লি বিধানসভায় জয়ের হ্যাটট্রিক গড়েছেন আপ সুপ্রিমো কেজরিওয়াল। ২১,৬৯৭ ভোটে জিতেছেন কেজরি। তবে এবারের নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি ব্যবধানে জিতেছেন আম আদমি পার্টির সঞ্জীব ঝা। বুরারি থেকে ৮৮ হাজারেরও বেশি ভোটে জিতেছেন এই আপ প্রার্থী।  সঞ্জীবের মোট প্রাপ্ত ভোট ১,৩৯,৫৯৮। অন্যদিকে তাঁর নিমটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জনতা দল (ইউনাইটেড)-এর প্রার্থী শৈলেন্দ্র কুমার পেয়েছেন ৫১,৪৪০ ভোট।

বেশি ভোটে জেতার ক্ষেত্রে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন আরেক আপ প্রার্থী আমানাতুল্লা খান। ওখলা বিধানসভা থেকে জিতেছেন আমানাতুল্লা। এই ওখলারই অন্তর্গত শাহিনবাগ। এই কেন্দ্রে আপ প্রার্থী জিতেছেন ৭১ হাজার ভোটের ব্যবধানে।

অন্যদিকে সবচেয়ে কম ভোটের ব্যবধানে জেতার ক্ষেত্রেও রয়েছেন এক আপ বিধায়ক। বিজওয়াসান আসন থেকে আপ প্রার্থী ভূপিন্দর সিং জুন জিতেছেন মাত্র ৭৫৩ ভোটের ব্যবধানে। ভূপিন্দর এই কেন্দ্রে মোট ভোট পেয়েছেন ৫৭,২৭১ টি। অন্যদিকে বিজেপির হয়ে ভোটে লড়া সতপ্রকাশ রানা পান ৫৬,৫১৮ টি ভোট। বিজেপি শাসিত হরিয়ানা সীমান্ত লাগোয়া এই কেন্দ্রে ২৬ রাউন্ড পর্যন্ত চলে কড়া সমানে-সমানে লড়াই। ২০১৫ সালে এই কেন্দ্র থেকে ১৯ হাজার ভোটে জিতেছিলেন আপ প্রার্থী কর্নেল দেবেন্দ্র শেরাওয়াত।

আরও পড়ুন: ফল ঘোষণা হতেই হিংসা শুরু দিল্লিতে, আপ বিধায়কের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি, নিহত দলীয় কর্মী

অন্যদিকে লক্ষ্মীনগর কেন্দ্রে মাত্র ৮৮০ ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেন বিজেপি প্রার্থী। খুব কম ভোটের ব্যবধানেই হারতে হয় আপ নেতা নীতিন ত্যাগিকে। 

 দিল্লি নির্বাচনে এবার কামাল দেখিয়েছেন আপের মহিলা প্রার্থীরাও। ২০২০ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মোট ৯ জন মহিলা প্রার্থীকে টিকিট দিয়েছিল আম আদমি পার্টি। এদের মধ্যে ৮ জনই জয় পেয়েছেন। 

আরও পড়ুন: ৬ মাস আগে ধর্ষণের শিকার হয়েছিল মেয়ে, এবার যোগীরাজ্যে বাবাকে মারা হল গুলি করে

এদিকে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি তৃতীয়বার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করতে চলেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। রামলীলা ময়দানে হবে এই শপথগ্রহণ। বুধবার সকালে দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বৈজালের সঙ্গে দেখা করেন কেজরি। সূত্রের খবর, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।