বিহারে গত ২৪ ঘণ্টা ধরে ভারী বর্ষণের জেরে কার্যত বানভাসি পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। যার জেরে সারা রাজ্য জুড়ে লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে বলে খবর। পাটনা-সব বিস্তীর্ণ এলাকা কার্যত জলমগ্ন হয়ে পড়েছে বলে খবর। শনিবার সকালের বৃষ্টিতেই কার্যত জলমগ্ন হয়ে পড়েছিল গোটা পাটনা শহর। শহরের রাস্তাঘাটে শুরু হয়ে গিয়েছিল নৌকো চলাচল। 

রাজেন্দ্র নগরের কলোনি এলাকা থেকে অসংখ্য মানুষকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে খবর। পাশাপাশি বিহারের অধিকাংশ জেলাতেই ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের জেরে লাল সতর্কতা জারি করেছে প্রশাসন। শহরের অপেক্ষাকৃত নীচু এলাকায় যেসমস্ত মানুষ আটকে পড়েছেন, তাদের উদ্ধার করতেও বিপুল সংখ্যায় ট্রাক এবং বাসের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। 

আবহাওয়াবিদরা এখনও কোনও আশার বাণী শোনাচ্ছেন না কারণ ভারতের মৌসম ভবনের তরফে জানানো হয়েছে যে রবিবারও গোটা রাজ্য জুড়ে ভারি থেকে অতি ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। শেষ পাওয়া খবর অনুসারে রবিবার সকাল থেকেই ভারি বর্ষণ জারি রয়েছে বিহার রাজ্যে। মনে করা হচ্ছে এই লাগাতার বৃষ্টির জেরে অপেক্ষাকৃত নীচু অঞ্চলগুলি জলমগ্ন হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। পাশাপাশি বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন হয়ে যাওয়ার বিষয়টিও কর্মকর্তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে। কারণ এর জেরে ট্রাফিকের ওপর একটি বিরাট প্রভাব পড়তে চলেছে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ভারি থেকে অতি ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানিয়েছে হাওয়া অফিস।