প্যাংগং লেক সংলগ্ন এলাকার লুকুং-এর বেস ক্যাম্পে সৈন্যদের  সঙ্গে কথা বলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। সমস্ত প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য সেনাদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন তিনি। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী কথা বলছেন সৈন্যদের সঙ্গে। আর সেই সঙ্গে প্রতিরক্ষা দফতর থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ১৬ নম্বর বিহার রেজিমেন্টের সৈন্যদের সঙ্গেই কথা বলেছিলেন রাজনাথ সিং। 

১৬ নম্বর বিহার রেজেমেন্ট হল সেই সাহসী যোদ্ধাদের যাঁরা গত ১৫ জুন  গ্যালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনার অগ্রাসহ প্রতিহত করেছিল। এই সেইসময় নেতৃত্বে ছিলেন কর্নেল বি সন্তোষ। চিনা সেনার অগ্রাসহ রুখতে কর্নেল সহ ২০ জওয়ান প্রাণ দিয়েছিলেন। 

শচীন পাইলটের বিরুদ্ধে প্ল্যান 'বি' তৈরি কংগ্রেসের, গানের লড়াই খেললেও নিশ্চিন্তে নেই গেহলট শিবির ...

দুদিনের সফরে জম্মু ও কাশ্মীর ও লাদাখ সফরে গেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। সঙ্গে রয়েছে সেনা প্রধান এমএম নারাভানে। বেশ কয়েকটি ফরোয়ার্ড এলাকা পরিদর্শন করার কথা রয়েছে তাঁদের। 

বিহারের স্বাস্থ্য পরিষেবার বেহাল ছবি ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়, তাই নিয়েই রাজনৈতিক সমীকরণে ব্যস্ত তেজস্

এদিন ভারতীয় জওয়ানদের সঙ্গে দেখা করার সময় রাজনাথ সিং বলেন চিনা সেনার অগ্রাসন প্রতিহত করে ভারতীয় জওয়ানরা শুধুমাত্রে দেশের সীমান্ত সুরক্ষিত করেছে এমনটা নয়। তাঁরা ১৩০ কোটি ভারতীয় অভিমানও রক্ষা করছে। 

রাজনাথ সিং আরও বলেন, দেশ জওয়ানদের এই আত্মত্যাগ কখনই ভুলতে পারবে না। জওয়ানদের এই দৃঢ়তা রক্ষা করেছে গোটা জাতিকে। তিনি আরও বলেন ভারত সর্বদাই শান্তির পক্ষেই সওয়ান করেছে। কিন্তু তাতে কখনই প্রকাশ পায় না যে ভারত দুর্বল। কিন্তু দেশের আত্মসম্মান আঘাত পায় এমন কোনও পদক্ষেপ মেনে নেওয়া হবে না বলেও তিনি জানিয়েছেন। 


এক মাসেরও বেশি সময় ধরে সীমান্তে উত্তাপ বাড়ছে। দীর্ঘদিন ধরেই মুখোমুখি অবস্থা করছিল ভারতীয় ও চিনা সেনা। ইতিমধ্যেই  সামরিক পর্যায়ে চারটি বৈঠক হয়েছে। তারপর থেকে কিছুটা হলেও কমতে শুরু করেছে সীমান্ত উত্তাপ। কিন্তু এখনও পরিস্থিতির দিকে কড়া নজর রেখেছে ভারতীয় সেনা বাহিনী।