লাদাখে ভারত-চিন উত্তেজনা এখনও অব্যাহত। দেশজুড়ে যখন জনমত চিনের বিরুদ্ধে, সেই সময়ই কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা ফেরানোর বিষয়ে চিনের সমর্থন চাইলেন ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুক আবদুল্লা। সোমবার তিনি বলেছেন, চিন কখনওই ৩৭০ ধারা বাতিলের বিষয়টি গ্রহণ করেনি এবং তাঁর আশা এই ধারা পুনরুদ্ধারে তারা কাশ্মীরিদের সহায়তা করবে।

ইন্ডিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণের রেখা বরাবর চিনা আগ্রাসনের জন্য প্রত্যক্ষভাবে কেন্দ্রের কাশ্মীর পদত্রেপকেই দায়ী করেছেন। ২০১৯ সালের ৫ অগাস্ট কেন্দ্র জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করেছিল। ফলে রাজ্যটি তাদের সংবিধান প্রদত্ত বিশেষ মর্যাদা হারায়। আবদুল্লা বলেছেন, কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ 'অগ্রহণযোগ্য'। এই পদক্ষেপের ফলেই চিন লাদাখের বিতর্কিত এলাকাগুলিতে আগ্রাসী পদক্ষেপ নিয়েছে বলে মনে করেছেন ফারুক আবদুল্লা। তাই কাশ্মীর উপত্যকায় ৩৭০ ধারা পুনরুদ্ধারেও বেজিং সরদ্থক ভূমিকা নেবে বলে মনে করছেন তিনি।

চিনা রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং-কে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গুজরাত ও চেন্নাই সফর নিয়েও কেন্দ্রকে বিদ্ধ করেছেন এই প্রবীন কাশ্মীরি নেতা। তিনি বলেন, চীনা রাষ্ট্রপতিকে তিনি আনেননি। প্রধানমন্ত্রী মোদীই তাঁকে গুজরাতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন এবং তাঁর সঙ্গে দোলনায় দোল খেয়েছিলেন। তারপর চেন্নাই নিয়ে গিয়ে চিনা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে খাবারও খেয়েছিলেন।