সোশ্যাল মিডিয়ায় হিন্দু সভ্যতা সংক্রান্ত তথ্য প্রচারে বাধা! ব্য়বহারকারীর অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে এবার বিপাকে পড়ল টুইটার কর্তৃপক্ষ। সংস্থার এমডি মণীশ মাহেশ্বরীর বিরুদ্ধে  থানায় এফআইআর দায়ের করলেন এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের বিদিশায়।

আরও পড়ুন: মন্দিরে চুম্বন দৃশ্যে আপত্তি বিজেপির, নেটফ্লিক্সের 'এ স্যুটেবেল বয়' নিয়ে মামলা করার হুমকি

ঘটনাটি ঠিক কী? অভিযোগকারীর নাম শ্রীকান্ত শর্মা। মধ্যপ্রদেশের বিদিশার বাসিন্দা তিনি। টুইটারে 'ট্রইন্ডিয়োলজি' এক অ্য়াকাউন্ট চালাতেন শ্রীকান্ত। সেই অ্য়াকাউন্ট থেকে ভারতীয়, বলা ভালো হিন্দু সভ্যতার নিয়ে বিভিন্ন রকমের তথ্য শেয়ার করা হত নিয়মিত। শ্রীকান্তের দাবি, আগাম কোনও নোটিশ ছাড়াই তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কেন? তাঁর অভিযোগ, দিওয়ালি সময়ে বাজি ফাটানো নিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছিলেন। তারপর দেখেন, তাঁর অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষ। তাহলে সেই পোস্টে আপত্তিকর কিছু ছিল? একেবারেই নয়, বরং পোস্টটি ঠিক মতো খতিয়ে দেখে টুইটার কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ করেছে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: শাড়ি পরেই হাতে ডাম্বেল নিয়ে চলছে দৈহিক পরিশ্রম, ৮২ বছরের বৃদ্ধার ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

এদিকে এই ঘটনার পর টুইটার সংস্থার এমডি মণীশ মাহেশ্বরীর বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর করেন শ্রীকান্ত শর্মা। তাঁর বক্তব্য, যেভাবে বিনা কারণে তাঁর টুইটার অ্য়াকাউন্টটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, তা বাকস্বাধীনতার কেড়ে নেওয়ার শামিল। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তিনি।