পায়ে পায়ে এক বছরের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শুরু করা 'ফিট ইন্ডিয়া মুভমেন্ট'। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান। তবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠান হবে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জানান হয়েছে আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর বিশেষ দিনটিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ফিটনেস নিয়ে কথা বলবেন দেশের নাগরিকদের সঙ্গে। আর সেই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পারেন ক্রিকেটার বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে অভিনেতা তথা মডেল মিলিন্দ সোমন। যাঁরা নিজেদের ফিটনেসের গোপন রহস্য ভাগ করেনেবেন দেশের মানুষের সঙ্গে। পাশাপাশি দেবেন একাধিক টিপসও। 

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানান হয়েছে অনলাইন ইন্টারঅ্যাকশনে অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের ফিটনেট যাত্রাপথ ভাগ করেনেবেন বাকিদের সঙ্গে। ফিটনেস সংক্রান্ত একাধিক টিপসও দেবেন। ফিটনেস আর সুস্বাস্থ্য নিয়ে একটি স্পষ্ট ধারনা যাতে তৈরি হয় সেই দিকেই গুরুত্ব দেওয়া হবে। পাশাপাশি ফিটনেস সংক্রান্ত একটি রোডম্যাপ তৈরির বিষয় আলোচনা হতে পারে। করোনাভাইরাসের এই অতিমারির সময় ফিটনেস আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর আলোচনার মূল উদ্দেশ্যই হল ফিটনেস, পুষ্টি আর সুস্থতা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করা। 


প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, দেশের মানুষের সুস্থতা বাডাতেই ফিটনেস ইন্ডিয়া নিয়ে আলোচনা শুরু করেছিলেন। দেশের নাগরিকরা যাতে সুস্বাস্থ্যের অধিকারি হয় সেই দিকেই লক্ষ্য ছিল তাঁর। ফিট ইন্ডিয়ার মূল নীতিই ছিল নিখরচায়, সহজ আর মজাদার পদ্ধতিতে নিজেকে ফিট রাখা। পাশাপাশি আচরণগত পরিবর্তন আনতে ফিটনেসকে প্রতিটি ভারতীয় নাগরিকের জীবনে অপরিহার্য অঙ্গ করে তোলা। তাই একবছর পরে আবারও জোন দেওয়া হচ্ছে ফিট ইন্ডিয়া মুভমেন্টের ওপর। গতবছর থেকেই ফিট ইন্ডিয়া মুভমেন্ট শুরু হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে। তারপর থেকে দেখা যায় এটি ধীরে ধীরে গণআন্দোলনে পরিণত হয়েছে। প্রায় সাড়ে তিন কোটি মানুষ এই আন্দোলনে প্রত্যক্ষভাবে আংশ নিয়েছে। যা রীতিমত উৎসহ জুগিয়েছে অংশগ্রহণকারীদের। বাকিরাও যাতে এগিয়ে আসেন সেই দিকেও জোর দেওয়া হচ্ছে।