আইএনএক্স মামলায়ে জড়িত অন্যতম নাম পি চিদম্বরম বর্তমানে তিহার জেলে। জেলে থাকলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে কিন্তু তিনি সক্রিয়। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে তিনি একটি বার্তা দেন যেখানে দেশের অর্থনীতি সম্পর্কে গভীরভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি।

টুইটারে পোস্ট করে তিনি লেখেন, 'অর্থনীতি সম্পর্কে আমি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। দরিদ্ররা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। নিম্ন  আয়, কম চাকরি, কম বাণিজ্য এবং কম বিনিয়োগের ফলে দরিদ্ররা সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত হচ্ছে। দেশকে এই অবনতি  ও অন্ধকারের হাত থেকে বের করার পরিকল্পনা কোথায়?'

 

প্রাক্তন এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী টুইটারে তাঁর ফলোয়ারদের তাঁকে সমর্থন করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন এবং সেইসঙ্গে তিনি আরও বলেছেন যে, গরিব মানুষের ন্যায়বিচার এবং  বিচারের মধ্যে পার্থক্য করতে পারার ক্ষমতা দেখে তিনি বিস্মিত। আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১৫ দিনের সিবিআই হেফাজত শেষ হওয়ার পর গত ৫ সেপ্টেম্বর তিহার জেলে নিয়ে যাওয়া হয়। 

তিহার জেলে কংগ্রেসের প্রতিনিধি দল, কাঠ-খড় পুড়িয়েও দেখা মিলল না চিদম্বরমের

তিহার জেলে প্রথম রাতেই অস্থির চিদম্বরম, পেলেন না কোনও বিশেষ সুবিধা

দুর্গন্ধ আর গরমে বিরক্ত চিদম্বরম, খাচ্ছেন না জেলের রুটিও

প্রসঙ্গত, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০০৭ সালে অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন বিদেশ থেকে বিপুল অঙ্কের টাকা আইএনএক্স মিডিয়াকে পাইয়ে দেওয়ার ছাড়পত্র দিয়েছিলেন তিনি। এর বিনিময়য়ে তাঁর ছেলে কার্তি চিদম্বর কে মোটা টাকা ঘুষও দিয়েছিল আইএনএক্স মিডিয়ায়। জেরার মুখে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর নাম বলেছিলেন বিজনেস টাইকুন ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়, যিনি বর্তমানে শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডের অভিযোগে জেলে রয়েছেন।