কংগ্রেস নেতা তথা জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী গোলাম নবি আজাদ এবং কাশ্মীরের কংগ্রেস নেতা গোলাম আহমেদ মীর এদিন শ্রীনগরের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন। এদিন শ্রীনগর বিমানবন্দরে তাঁদের বাধা দেওয়া হয়েছে বলে খবর। দিল্লি থেকে বিমানে করে আজ সকালে শ্রীনগরের মাটিতে পা রেখেছিলেন তাঁরা। 

সূত্রের খবর, নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখেই তাঁদের কাশ্মীরে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া হয় । কর্তৃপক্ষের দাবি, কোনও রাজনৈতিক নেতা বা মন্ত্রী যদি কাশ্মীরের মানুষের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাত করেন তাহলে সাম্প্রতিক পরিস্থিতি আরও খানিকটা উত্তপ্ত হয়ে যেতে পারে। 

প্রসঙ্গত এদিন জম্মু ও কাশ্মীরের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগে এদিন তিনি জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালকে কার্যত তুলোধনা করেছেন। সম্প্রতি সোপিয়ান উপত্যকায় কাশ্মীরের স্থানীয় মানুষদের সঙ্গে কথা বলা এবং তাঁদের সঙ্গে একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। আর এই বিষয়টিকে ঘিরেই তীব্র কটাক্ষ করল কংগ্রেস। 

কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের ঠিক পরই কাশ্মীরের গিয়েছিলেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। উপত্যকায় যাতে কোনও অশান্তকর পরিস্থিতির না সৃষ্টি হয় সেইজন্য গোটা সেনাবাহিনীর কার্যপদ্ধতি খতিয়ে দেখে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন তিনি। সোপিয়ান উপত্যকায় থাকা সেনাদের সঙ্গে কাটানো মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সম্প্রতি। 

এই প্রসঙ্গেই গোলাম নবি আজাদ মন্তব্য করেছেন, স্থানীয় মানুষকে টাকার বিনিময়ে ভাড়া করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর দাবি আসল চিত্রটা অন্যরকম। তিনি আরও দাবি করেন যে, কাশ্মীরই ভারতের প্রথম কোনও রাজ্য যেখানে কার্ফু জারি করে তা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা হল।