Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Edible Oils: ক্রেতাকে স্বস্তি দিতে বড় উদ্যোগ কেন্দ্রের, ভোজ্য তেলের মজুত সংক্রান্ত তথ্য পেশের নির্দেশ রাজ্যকে

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে ১২ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত কতটা ভোজ্য তেল মজুত ছিল তা জানাতে বলা বয়েছে। 

government asks states and uts to issue stock limit directions for Edible Oils bsm
Author
Kolkata, First Published Oct 25, 2021, 9:05 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

কেন্দ্রীয় সরকারের খাদ্য ও গণবন্টন বিভাগ (Department of Food and Public Distribution) (DFPD) ভোজ্য তেলের (Edible Oil) মজুত সীমার (Stock Limit)অবস্থা সম্পর্কে পর্যালোচনা করার জন্য সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত (States/UTs) অঞ্চলের সঙ্গে একটি বৈঠক করেছে। কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে অবিলম্বে তাদের জানাতে হবে কতটা পরিমাণে ভোজ্য তেল মজুত রয়েছে তাদের ভাঁড়াড়ে। ইতিমধ্যেই উত্তর প্রদেশে ১২, ২০২১ এর স্টক লিমিট ঘোষণা করেছে। 

government asks states and uts to issue stock limit directions for Edible Oils bsm

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে ১২ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত কতটা ভোজ্য তেল মজুত ছিল তা জানাতে বলা বয়েছে। গ্রাহকরা যাতে কেন্দ্রীয় সরকারে নেওয়া পদক্ষেপের সুবিধে পান তার জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন যুগ্নসচিব পার্থ এস দাস। তিনি প্রতিটি রাজ্যকে তাদের ব্যবহারের ধর অনুযায়ী স্টক সীমানে অবহিত করার ওপরে বেশি জোর দিয়েছে। 

Amit Shah: কাশ্মীর সফরে একদম অন্য মুডে অমিত শাহ, রাত কাটাবেন পুলওয়ামার CRPF ক্যাম্পে

DefExpo 2022: প্রতিরক্ষা সামগ্রীর আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর প্রস্তুতি শুরু, রাজনাথ চালু করলেন নতুন ওয়েবসাইট

Murder Update: অস্ত্র ভর্তি ব্যাগ ফেলে গেল কারা, হাওড়ার ব্যবসায়ী সব্যসাচী মণ্ডল খুনে তাদের সন্ধানে পুলিশ

রাজস্থান, গুজরাট, হরিয়ানাসহ বেশ কয়েকটি রাজ্য ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের কাছে প্রস্তাব জমা দিয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি রাজ্যগুলি তাদের ভোজ্য তেলের মজুত সংক্রান্ত তথ্য হাতে পাবে বলেও জানিয়েছে। অন্য়দিকে মহারাষ্ট্র, ওড়িশা। কেরল, ঝাড়খণ্ড, ছত্তিশগড়সহ বাকি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলি সীমা নির্ধারণের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। 


কেন্দ্রীয় সরকার পূর্বেই নির্দেশ দিয়েছিল রাজ্যসরকার গুলিতে নিশ্চিত করতে হবে তারা কেন্দ্র যে শুল্ক কমানোর ব্যবস্থা করেছে তার সুবিধে সাধারণ নাগরিক পাচ্ছে। ভোজ্য তেলের চড়া দাম থেকে দেশের সাধারণ মানুকে নিষ্কৃতী দিতেই বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারের দাবি তাদের এই পদক্ষেপ খাদ্যে মূল্যস্ফীতি কমিয়ে আনতে পারে। ভোজ্য তেলের দাম কমলে সাধারণ মানুষ অনেকটাই স্বস্তি পাবে। 

ডিএফপিডি ভোজ্য তেলের দাম ও ভোক্তাদের কাছে তার প্রাপ্যতা বাড়াতে পুরো বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। উৎসবের মরশুমে ভোজ্য তেলের চাহিদা আরও বড়বে। তাই কেন্দ্রীয় সরকার চাইছে তার আগেই রাজ্যসরকারগুলি তেল ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে ভোজ্যেতেলের মজুত সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করুক। কেন্দ্রীয় সরকার সাপ্তাহিক ভিত্তিতে ভোজ্য তেল ও তেলের বীজ মজুত সম্পর্কে তথ্য পেশের জন্য একটি ওয়েব পোর্টালও চালু করেছে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios