আগামী ২ অক্টোবর থেকে সারা দেশ জুড়ে প্লাস্টিকের ব্যাগ, কাপ এবং স্ট্র-এর ব্যবহার নিষিদ্ধি হওয়ার পথে। এর পাশাপাশি প্লাস্টিকের তৈরী সমস্ত রকমের দ্রব্য তৈরি, আমদানি এবং ব্যবহারের প্রক্রিয়ার ওপরেও জারি করা হবে নিষেধাজ্ঞা। শহর ও গ্রামাঞ্চলে প্লাসিক একবার মাত্র ব্যবহার করলেই তার থেকে দূষণের মাত্রা অনেকগুণ বেড়ে যায়। 

সরকারি আধিকারিকদের সূত্রে খবর, আগামী ২০২২ সালের মধ্যেই প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করতে তৎপর হয়ে উঠেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রসঙ্গত চলতি বছরে স্বাধীনতা দিবসের দিন, এবং এমনতী প্রধানমম্ত্রী মন কি বাত নুষ্ঠানে এসেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্লাস্টিকের ব্যবহার রোধে বিশেষ বার্তা  দিয়েছিলেন। আদ এবার আগামী ২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর ১৫০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে প্লাস্টিকের তৈরি ছয়টি জিনিস নিষিদ্ধ করার জন্য প্রচারাভিযান শুরু করার পথে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কায়দায় বাঁশি বাজালেই গরু বেশি দুধ দেয়, দাবি বিজেপি বিধায়কের

খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডে দোষ স্বীকার করল ১৯ জন, সাজা ঘোষণা ৩০ অগাস্ট

জানা গিয়েছে প্লাস্টিকের তৈরি ব্যাগ, কাপ, প্লেট, ছোট বোতল, স্ট্র, এবং বিভিন্ন ধরণের স্যাসে-র মতো ছয়টি দ্রব্য সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করার পথে এগোচ্ছে সরকার। সূত্রের খবর, এই নিষেধাজ্ঞার ওপর বিশেষভাবে জোড় দেওয়া হবে এবং এইসব পণ্যের উৎপাদন, ব্যবহার এবং আমদানীর ওপরেও জারি করা হবে নিষেধাজ্ঞা। প্রধানত কেন্দ্রীয় মন্ত্রণালয়ের তরফে পরিবেশ এবং আবাসন মন্ত্রক এই অভিযানের নেতৃত্ব দেবে বলে জানা গিয়েছে। 

এনআরসি তালিকায় নেই বহু বাঙালি হিন্দু, কপালে ভাঁজ রাজ্য বিজেপি-র

প্লাস্টিক-এর ব্যবহার যে পরিবেশের জন্য কতখানি মারাত্মক হতে পারে সেই নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে ইতিমধ্যেই  আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। বিশ্বব্যাপী বেশিরভাগ দেশের কপালেই প্লাস্টিক ব্যবহার বৃদ্ধির জেরে পড়েছে চিন্তার ভাঁজ। প্লাস্টিকের ব্যবহার কীভাবে সামুদ্রিক জীবদের বাঁচাপ পক্ষে অন্তরায় হয়ে উঠেছে এবং মানুষের খাদ্যশৃঙ্খলে প্রবেশ করে সর্বনাশ ঘটাচ্ছে তাতেই চিন্তিত হয়ে পড়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ইতিমধ্যেই ইউরোপীয় ইউনিয়নের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে,একক ব্যবহারযোগ্য প্লাসিটিকের জিনিস যেমন স্ট্র, কাঁটা চামচ, ছুড়ি, কটন বাড ইত্যাদির ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হবে। আর তার আগেই এক কদম এগিয়ে এসে দেশে ছয় প্রকারের প্লাস্টিক ব্যবহাকর সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করল ভারত।