Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Abhinandan Varthaman: অভিনন্দন বর্তমানকে 'বীরচক্র' দিয়ে সম্মানিত করলেন রাষ্ট্রপতি, দেখুন

রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দের (President Ram Nath Kovind) হাত থেকে বীর চক্র (Vir Chakra) পুরস্কার পেলেন গ্রুপ ক্যাপ্টেন অভিনন্দন বর্তমান (Group Captain Abhinandan Varthaman)। ২০১৯ সালে পাক যুদ্ধবিমানকে গুলি করে ধ্বংস করেছিলেন তিনি। 

Group Captain Abhinandan Varthaman accorded Vir Chakra by President Ram Nath Kovind ALB
Author
Kolkata, First Published Nov 22, 2021, 12:28 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সোমবার রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দের (President Ram Nath Kovind) হাত থেকে বীর চক্র (Vir Chakra) পুরস্কার পেলেন উইং কমান্ডার (বর্তমানে গ্রুপ ক্যাপ্টেন) অভিনন্দন বর্তমান (Group Captain Abhinandan Varthaman)। ২০১৯ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি, ভারতে অনুপ্রবেশ করা পাক এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে (F-16 Fighter Jet) গুলি করে ধ্বংস করেছিলেন সেই সময় উইং কমান্ডার পদে থাকা অভিনন্দন। এদিন, এই সম্মান জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi), প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh), লোকসভার স্পিকার ওম প্রকাশ বিড়লা (Om Prakash Birla)-সহ বহু বিশিষ্ট মানুষ উপস্থিত ছিলেন।   

২০১৯ সালে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের (Pakistan Occupied Kashmir) বালাকোটে (Balakot), জঙ্গিঘাঁটিতে বিমান হামলার (Air Strike) চালিয়েছিল ভারত। তার, একদিন পরই, ২৭ ফেব্রুয়ারি, পাকিস্তানি বিমান বাহিনীর (Pakistani Air Force) ৪টি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান হানা দিয়েছিল ভারতের আকাশ সীমায়। মিগ-২১ (MIG-21) বিমান নিয়ে তাদের তাড়া করেছিল ভারতীয় বায়ুসেনার (Indian Air Force) ৫১ স্কোয়াড্রন। শ্রীনগর ভিত্তিক বায়ুসেনার এই  স্কোয়াড্রনেরই সদস্য ছিলেন উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান।  

আরও পড়ুন - পাক মিউজিয়ামে বসল অভিনন্দনের মূর্তি, অপমানের পাল্টা উঠল ৯৩০০০ পাক সেনার কথা

আরও পড়ুন - মিথ্যা বলেছিল পাকিস্তান! কীভাবে অত্যাচার চলেছিল অভিনন্দনের উপর, জানেন

আরও পড়ুন - অভিনন্দনের বদলা নিল সেনাবাহিনী! নিয়ন্ত্রণরেখায় গুলির লড়াইয়ে খতম অত্যাচারকারী 

আকাশপথের সেই বিমান-যুদ্ধে একটি পাকিস্তানি এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করেছিলেন অভিনন্দন। আর যুদ্ধ করতে করতে তিনি ঢুকে পড়েছিলেন পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। শত্রু বাহিনীর তাঁর বিমানটিও গুলি করে ভূপাতিত করেছিল। এরপর পাকিস্তান সেনাবাহিনীর (Pakistani Army) হাতে বন্দী হয়েছিলেন বায়ুসেনার এই উইং কমান্ডার। পরে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে ক্রমাগত কুটনৈতিক চাপ সৃষ্টি করে তাঁকে পাকিস্তানের কবল মুক্ত করা হয়। 

"

৫১ স্কোয়াড্রনের মধ্যে অভিনন্দনই ছিলেন মিগ-২১'এর একমাত্র পাইলট, যিনি আমেরিকায় (USA) তৈরি পাকিস্তানের এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে গুলি করে মাটিতে নামিয়ে আনতে পেরেছিলেন। ভারতীয় বায়ুসেনা তাঁর এই কীর্তির স্বীকৃতিতে আগেই  অভিনন্দনকে, গ্রুপ ক্যাপ্টেন পদে উন্নীত করেছে। তাঁর ইউনিট, ৫১ স্কোয়াড্রনও, পাকিস্তানি বিমান বাহিনীর বিমান হামলাকে ব্যর্থ করার জন্য একটি বিশেষ স্বীকৃতি পেয়েছে। এবার বীরচক্র দিয়ে সম্মান জানানো হল গ্রুপ ক্যাপ্টেন অভিনন্দন বর্তমানকে। 

২০১৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের, খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের বালাকোটে, জৈশ-ই-মহম্মদ জঙ্গি গোষ্ঠীর একটি শিবিরের উপর বিমান হামলা চালিয়েছিল ভারত। সেখানে জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওযা হত বলে দাবি করা হয়েছে ভারতীয় সেনার পক্ষ থেকে। তার আগে ওই বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি, জইশ জঙ্গিরা জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে, সিআরপিএফ (CRPF) -এর একটি কনভয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়েছিল। যার জেরে শহিদ হয়েছিলেন ৪০ জন জওয়ান। তারই বদলা নিতে এই হামলা চালানো হয়েছিল।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios