গুজরাটের কংগ্রেস-আপ-কে ফেলে অনেকটাই এগিয়ে বিজেপি, বলল এই সংস্থার ভোট সমীক্ষার রিপোর্ট

| Nov 29 2022, 08:37 AM IST

jammu vote

সংক্ষিপ্ত

গুজরাটের প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষা করেছে এবিপি নিউজ আর সি-ভোটার। কংগ্রেস আর আপ -র তুলনায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে বিজেপি।

 

গুজরাটের ভোটের দৌড়ে কে এগিয়ে আর কে পিছিয়ে? তাই নিয়ে সামনে আসছে একাধিক প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য। আর সেই কারণে গুজরাটের ভোট নিয়ে দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও তা যথেষ্টই চর্চায় বিষয়। অন্যদিকে গুটরাটে ১৯৯৮ সাল থেকেই টানা ২৩ বছর ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি। এবারে যদি জেতে তা তাহলে তা হবে বিরোধীদের কাছে বড় জবাব। যাইহোক আমাদের হাতে এসেছে, এবিপি নিউজ ও সি-ভোটারের যৌথ সমীক্ষা রিপোর্ট। রিপোর্টে অবশ্য এগিয়ে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিজেপি। দ্বিতীয় স্থানে কংগ্রস আর তৃতীয় স্থানে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি।

১৮২ আসনের গুজরাট বিধানসভায় এবিপি নিউজ-এর সমীক্ষা অনুযায়ী বিজেপি পেতে পারে ১৩৪-১৪২টি আসন। কংগ্রেসের ভাগ্যে জুটবে ২৮-৩৬ টি আসন। আর অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি দখল করতে পারে ৭-১৫টি আসন। নির্দল প্রার্থীদের আসন সংখ্যা হতে পারে কমকরে দুটি।

Subscribe to get breaking news alerts

নির্বাচনী প্রচারে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। একের পর এক জনসভায় ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। উপচে পড়া ভিড় আর স্থানীয় বাসিন্দাদের উন্মাদনাকে সঙ্গে করে এখনও পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। এই অবস্থায় অনেকটাই পিছেয় রয়েছে কংগ্রেস। মুখের অভাব কংগ্রেস পিছিয়ে রয়েছে বলেও মনে করছে গুজরাটের রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তবে প্রচারে কংগ্রেসের থেকেও কিছুটা এগিয়ে রয়েছে আপ। কিন্তু ভোটবাক্স তেমন কামাল করতে পারবে না অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তেমনই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। আর সেই কারণে আপএর ভাগ্যে ৭-১৫টির বেশি আসন জুটবে না বলেও দাবি প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষা রিপোর্টে। যদিও গুজরাটের রাজনীতি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল মহলের ধারনা এখানে কংগ্রেস ও বিজেপিতেও টক্কর হবে। আম আদমি পার্টি তেমন কিছু করতে পারবে না। গুজরাটে বরাবরই দুটি দলের মধ্যেই লড়াই হয়েছে। কোনও তৃতীয় পক্ষ ভোট বাক্সে ভাগ বসাতে পারেনি। তবে এবার নির্বাচন ফলাফল যদি অন্য হল তাহলে তা হবে বদল।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গুজরাটের নির্বাচনে হাতিয়ার করেছেন গুজরাটের উন্নয়নকে। তিনি তাঁর রাজ্যে ডাবলইঞ্জিন সরকারে সুবিধের কথাই তুলে ধরেছেন। বলেছেন গুজরাট কতটা এগিয়েছে। তবে কংগ্রেসের তুরুপের তাপ হল কংর্ম সংস্থান। যা দেখে বিজেপিও ইস্তেহারে কর্মসংস্থানের কথা বলেছে। কিন্তু পঞ্জাব আর দিল্লির সাফল্যকে হাতিয়ার করেই গুজরাটে সাফল্য পেতে মরিয়া চেষ্টা করেছে আপ। গুজরাটে আগামী ১ ও ৫ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ হবে। ফল প্রকাশ আগামী ৮ ডিসেম্বর।

আরও পড়ুনঃ

শ্রদ্ধা হত্যাকাণ্ডের তদন্তে নেমে আরও এক খুনের পর্দা ফাঁস, ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে সহবাসসঙ্গীকে হত্যা করল মা

কীভাবে তৈরি হল বন্ধন ব্যাঙ্ক, সেই কথাই চন্দ্রশেখর ঘোষ তুলে ধরলেন ইনসাইটের আলোচনা সভায়

এবার গুজরাটে সরকার গড়বে আপ,সাদা কাগজে লিখে দিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল