দুর্গা পুজো শেষ। কয়েক দিন বাদে দীপাবলি। এই দীপাবলির ছুটিতে অনেকেই গোয়ার সমুদ্রের  ঢেউয়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ছুটি উপভোগ করার পরিকল্পনা করছেন। কিন্তু সেই পরিকল্পনায় প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে আবহাওয়া। শুক্রবার সকাল থেকে গোয়া জুড়ে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। মুম্বইয়ের আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, বৃষ্টিপাতের পরিমাণ এতটাই বেশি হতে পারে যে আগাম সতর্কতা হিসেবে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে, সমুদ্রে নামার বিষেয় জারি করা হয়েছে বিধি নিষেধ। 

আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, আরব সাগরে একটি গভীর নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়েছে। এই নিম্নচাপের জেরে মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী কিছু এলাকার পাশাপাশি গোয়াতে আগামী ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় ২০৪.৫ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা করছে মুম্বইয়ের আবহাওয়া দপ্তর। যার জেরে গোয়ায় ইতিমধ্যে সৈকতের পার্শ্ববর্তী  অস্থায়ী দোকানগুলোকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে প্রবল বৃষ্টিপাতে বিস্তীর্ণ এলাকা জলবন্দি হয়ে যেতে পারে। গোয়া প্রশাসন আগে থেকেই ত্রাণ মজুত করতে শুরু করেছে বলে জানা গিয়েছে। 

গোয়ার পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের বিস্তীর্ণ উপকূল এলাকা এবং কর্ণাটকের উপকূলবর্তী অঞ্চলে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। মুম্বইয়ের আবহাওয়া দপ্তরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রের কনকন এলাকার সিন্ধুদুর্গ ও রত্নগিরিতে লাল সর্তকতা জারি করা হয়েছে। যে সব অঞ্চলে লাল সতর্কতা জারি হয়েছে, সেখানে ভারী থেকে অতি ভারীর বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। শুক্রবার থেকে প্রবল বৃষ্টি শুরু হলেও, বৃহস্পতিবার থেকে মাঝারি মাপের বৃষ্টিপাত শুরু হবে বলে মুম্বইয়ের আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে মহারাষ্ট্রে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যে ত্রাণ মজুদের কাজ শুরু করেছে মহারাষ্ট্র প্রশাসন।