ঘটনাটি অদ্ভুত বলে মনে হলেও এটাই সত্যি। চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকেই এখনও পর্যন্ত অন্ধ্রপ্রদেশে নিখোঁজ রয়েছেন প্রায় দুই হাজারেরও বেশি মহিলা। সরকারি সূত্রে খবর, জানুয়ারি মাসের ১ তারিখ থেকে এখনও পর্যন্ত ২,১৬৯ জন মহিলার কার্যত কোনও খোঁজ নেই। স্টেট ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরো-র তরফে এমনই রিপোর্টই প্রকাশ করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়া এই মহিলাদের মধ্যে ৬২৯ জন আবার শিশু।

তিন তালাক আইন পর্যালোচনা করে দেখবে সুপ্রিম কোর্ট, কেন্দ্রকে নোটিশ শীর্ষ আদালতের

অন্ধ্রপ্রদেশের বিজয়ওরা এবং কৃষ্ণা জেলার ১৯৬ জন মহিলাকে এখনও পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে খবর। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, দিনের পর দিন যেভাবে এই মহিলাদের নিখোঁজ হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ছে তাতে করে বিষয়টি আরও সাংঘাতিক জায়গায় পৌঁছচ্ছে। রিপোর্টের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে, ২০১৭ সালে অন্ধ্রপ্রদেশের বিজয়ওয়ারা-এ নিখোঁজ হওয়া মহিলাদের অধিকাংশরই এখনও কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি।

লাগাতার কমছে টাকার দাম, বিপাকে দেশের অর্থনীতি

বর্তমানে এই তালিকার শীর্ষে রয়েছে ভাইজ্যাগ। সেখানকার ১২৭ জন নিখোঁজ মহিলার এখনও কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, অধিকাংশ মহিলাদের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে পারিবারিক অশান্তির জের। 

ভারত-পাকিস্তান চাইলেই মধ্যস্থতা, ফের কাশ্মীর প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ট্রাম্প

দ্বিপাক্ষিক আলোচনাই সমস্যার সমাধান, কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের পাশে ফ্রান্স

পাশাপাশি জেলার মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে,  অনন্তপুর,যেখানে এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ মহিলার সংখ্যা ২৬১। এরপর রয়েছে পূর্ব গোদাবরী , যেখানে নিখোঁজ মহিলার সংখ্যা ১৯৮। নিখোঁজদের মধ্যে অধরা শিশুদের মধ্যে ফের শীর্ষস্থানে রয়েছে অনন্তপুর,যেখানে ১০২ জন শিশুকন্যা এখনও অধরা। এরপর রয়েছে কুরনুল, যেখানে অধরা ৫৯ জন এবং পূর্ব গোদাবরীতে অধরা শিশু কন্যার সংখ্যা ৫৮ জন।