ফের কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করতে চাইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, ভারত এবং পাকিস্তান চাইলে কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করতে পারে আমেরিকা। আর এই বিষয় নিয়ে সরব হয়ে উঠেছিল আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক মহল।  

কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা চান মোদী, ট্রাম্পের এই দাবিকে 'মিথ্যা' প্রমাণ করল ভারত

পরে অবশ্য আমেরিকার তরফে জানানো হয়েছিল যে, কাশ্মীর ইস্যু আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিবেচনার মধ্যে নেই। কিন্তু, চলতি সপ্তাহের শেষের দিকেই রয়েছে জি৭ সম্মেলন। সেই সম্মেলনে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে দেওয়ার কথা রয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও নরেন্দ্র মোদীর। তার আগেই ফের কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে মধ্যস্থতা করার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

কাশ্মীর নিয়ে বদলায়নি মার্কিন নীতি, দুই দেশকে শান্তি প্রতিষ্ঠার আর্জি জানাল ট্রাম্প সরকার

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ইতিমধ্যেই ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যেকার চাপানউতোর আন্তর্জাতিক মহলের মালনে উঠে এসেছে। জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিল প্রসঙ্গে ভারতের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বারংবার সওয়াল তুলেছে পাকিস্তান। শুধু তাই নয় বিশ্বের ক্ষমতাশালী রাষ্ট্রগুলিকেও পাশে পেতে চেয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু আন্তর্জাতিক মহলে একের পর এক ধাক্কাই পেয়েছে পাকিস্তান। 

কাশ্মীর ইস্যুতে আর হস্তক্ষেপ নয় আমেরিকার, পাকিস্তানকে ধাক্কা দিয়ে জানালেন ট্রাম্প

এক প্রশাসনিক শীর্ষ আধিকারিকদের কথায়, কাশ্মীর ইস্যুর ওপর কড়া নজর রাখছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তাঁরা এখন শান্তি ও সংযমের পথে এগোচ্ছেন। সেইসঙ্গে ওই প্রশাসনিক আধিকারিক আরও জানান, ডোনাল্ড ট্রাম্প ইঙ্গিত দিয়েছেন যে কাশ্মীরে চলতে থাকা  অশান্তির পরিবেশ কমাতে ভারত ও পাকস্তান যদি চায় তাহলে তিনি মধ্যস্থতা করতে রাজি আছেন। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, একথাও তাঁদের জানা, আনুষ্ঠানিকভাবে ভারত কোনও মধ্যস্থতা চায়নি।