Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Army Dogs: ভারতীয় সেনায় বেলজিয়ান মেলিনোইস, এই প্রজাতির কুকুর কামড়ের জন্য বিখ্য়াত

ভারতীয় সেনাবাহিনীর (Indian Army) সন্ত্রাসবিরোধী শাখার (Counter-terrorism Unnit) ক্যানাইন স্কোয়াডে যুক্ত হল বেলজিয়ান ম্যালিনোইস (Belgian Malinois)। কেন এই প্রজাতির কুকুরদেরই সবথেকে পছন্দ গোটা বিশ্বের সশস্ত্র বাহিনীগুলির? 
 

Indian Army Counter-terrorism Unit Welcomes Belgian Malinois Canines ALB
Author
Kolkata, First Published Nov 29, 2021, 9:14 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

রবিবার, ভারতীয় সেনাবাহিনীর (Indian Army) সন্ত্রাসবিরোধী শাখার (Counter-terrorism Unnit) ক্যানাইন স্কোয়াডে স্বাগত জানানো হল বেলজিয়ান ম্যালিনোইস (Belgian Malinois) প্রজাতির কুকুরদের (Dogs)। এই প্রজাতির কুকুরগুলি খুবই আগ্রাসী। তাদের আক্রমণ করার জন্য়ই বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া যায়। সারা বিশ্ব জুড়েই সামরিক বাহিনীগুলিতে এই জাতের কুকুরকে, সেনা অভিযানের জন্য ব্যবহার করা হয়। ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছের এই প্রজাতির কুকুরগুলি খুবই চটপটে। অসাধারণ তত্পরতা, স্মার্ট মস্তিষ্ক, অবিশ্বাস্য সহনশীলতা, বুদ্ধিমত্তা এবং সুপ্রশিক্ষিত হতে পারার জন্য সুপরিচিত। কামড়ের জোরের দিক থেকেও কুকুরদের মধ্যে তারা বিশেষ স্থানে রয়েছে। নিরাপত্তা অভিযানে যেসব প্রজাতির কুকুর সশস্ত্র বাহিনীগুলিকে সহায়তা করে, তাদের মধ্যে এই প্রজাতি অন্যতম সেরা বলে ধরা হয়।

বিশ্বজুড়েই সশস্ত্র বাহিনীগুলির প্রিয় কুকুর হল এই বেলজিয়ান ম্যালিনোইস জাতের কুকুর। তারা তাদের আগ্রাসনের জন্য বিখ্যাত। ইতিহাসে বেশ কয়েকটি বিখ্যাত সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে অংশ নিয়েছে এই প্রজাতির কুকুর। সাম্প্রতিককালের মধ্যে - ২০১১ সালে এই প্রজাতির একটি কুকুরই পাকিস্তানের অ্যাবটাবাদে (Abatabad, Pakistan), ওসামা বিন লাদেনকে (Osama bin Laden) যে সেনা অভিযানে খতম করেছিল মার্কিন সেনা (US Army), সেই অভিযানে জড়িত ছিল। আবার ২০১৯ সালে, সিরিয়ার (Syria) এক অন্ধকারাচ্ছন্ন এবং বিপদসঙ্কুল রাস্তা ধরে গিয়ে একটি বেলজিয়ান ম্যালিনোইস কুকুরই আইএসআইএস নেতা আবু বকর আল-বাগদাদিকে (Abu Bakr al-Baghdadi) খুঁজে বের করেছিল। 

আরও পড়ুন - Indian Army: সাধারণের ওপর হামলায় জড়িত সব জঙ্গি খতম, কাশ্মীরে রেকর্ড সেনার

আরও পড়ুন - Kukur Tihar: চলছে কুকুর তিহার, নেপালের এই উৎসব সম্পর্কে জানুন বিস্তারিত

আরও পড়ুন - বন্ধুদের দান করা রক্তে প্রাণ বাঁচল ২ পথ কুকুরের, বিরল ঘটনা সিউড়িতে

জার্মান শেফার্ড (German Shepherds) কুকুরও খুবই আগ্রাসী। কিন্তু, তারা আকৃতিতে বেশ বড়। বেলজিয়ান ম্যালিনোইসরা, তুলনায় আকারে ছোট হওয়ার কারণে, তাদের প্যারাশুটে করে কিংবা বিমান থেকে দড়ি বেঁধে দ্রুত নামিয়ে দেওয়া যায়। ভারতে সিআরপিএফ (CRPF) বাহিনী তাদের নকশাল বিরোধী অভিযানে প্রথম এই জাতের কুকুরকে ব্যবহার করেছিল। পরে, আইটিবিপি (ITBP), এনএসজি-র (NSG) মতো অন্যান্য কেন্দ্রীয় সশস্ত্র পুলিশ বাহিনীও এই কুকুরদের বাহিনীতে সামিল করে। 

এর আগে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ক্যানাইন স্কোয়াডে ককার স্প্যানিয়েলস (Cocker Spaniels) এবং অন্যান্য প্রশিক্ষিত কুকুর দেখা গিয়েছে। ল্যাব্রাডর (Labradors) এবং জার্মান শেফার্ড ব্যবহার করা হয়েছে বিভিন্ন অনুসন্ধানের কাজে, বোমা-বিস্ফোরক খুঁজে বের করার কাজে। পাহাড়ী অঞ্চলে গ্রেট সুইস মাউন্টেন (Great Swiss Mountain dogs) কুকুরদের বিভিন্ন অভিযানে ব্যবহার করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর বেশ কয়েকটি কুকুর যুদ্ধে তাদের ভূমিকার জন্য বিশেষ প্রশংসাও পেয়েছে। শীর্ষ সেনাকর্তাদের কাছ থেকে এবং এমনকী সেনাবাহিনী প্রধানের কাছ থেকে সম্মানসূচক পদক রয়েছে। 

গত বছরের অগাস্টে, মন কি বাত (Man Ki Baat) অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi) এরকমই দুটি কুকুর - সোফি এবং ভিদার কথা জানিয়েছিলেন। ভিদা যখন নর্দার্ন কমান্ডে (Northern Command) নিয়ুক্ত ছিল। অন্যদিকে, সোফি ছিল স্পেশাল ফ্রন্টিয়ার ফোর্সের বম্ব ডিসপোজাল স্কোয়াডে। পাঁচটি মাইন এবং একটি গ্রেনেড মাটির নিচে পুঁতে ফেলার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল ভিদা। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios