আবারও জম্মু সীমান্তে দেখা গেল পাকিস্তানের গুপ্তচর ড্রোন। সেনা বাহিনী সূত্রের খবর শনিবার সন্ধ্যায় জম্মুর আর্নিয়া সেক্টরে পাক ড্রোনটিকে দেখা গেছে। সূত্রের খবর সেটি ১৯৭ কিলেমিটার দীর্ঘ আন্তর্জাতিক সীমান্ত এলাকায় টহল দিচ্ছিল। বিএসএফ আধিকারিক এনএস জাম্বাল বলেছেন ড্রোনটিকে থামানোর বিএসএফ জওয়ানরা বেশ কয়েরটি গুলি চালিছে। তারপরই ড্রোনটি পাকিস্তান ফিরিয়ে নে। গোয়েন্দারা মনে করছেন ড্রোনটি আন্তর্জাতিক সীমান্ত পার করে এদেশে প্রবেশের চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান। আর সেই কারণেই কোনও নিরাপদ স্থানের সন্ধান করছিল। কিন্তু পাকিস্তানের চক্রান্ত ভারত ব্যর্থ করেছে বলেও দাবি করেছে সেনা বাহিনীর এক আধিকারিক। 

এটাই প্রথম নয় , এর আগেও একাধিকবার পাক ড্রোন হানা দিয়ে দেখাগেছে। এর আগেই পাক ড্রোন গুলি করে নামিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। উদ্ধার করা হয়েছে  আগ্নেয়াস্ত্র। স্থানীয় প্রশাসনের অনুমান সেগুলি স্থানীয় সন্ত্রাসবাদীদের সাহায্যের জন্য সীমান্ত পার করে পাঠান হয়েছিল। যদিও ভারতীয় বাহিনীর তৎপরতায় পাক চক্রান্ত সাফল্যের মুখ দেখেনি। কিন্তু তারপরেও পাকিস্তান ভারতে সন্ত্রাসবাদীদের অনুপ্রবেশ-সহ একাধিক অস্ত্রপাচার একাধিক কার্যকলাপ চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ। 

গত সপ্তাহেই জম্মুর টোল প্লাজায় হামলা চালায় লস্কর ই তৈবার তিন জঙ্গি। পাল্টা জবাব দেয় ভারতীয় বাহিনীর জওয়ানরাও। তিন সন্ত্রাসবাদীকেই নিকেশ করা হয়। কোথা থেকে জঙ্গিরা এই দেশে অনুপ্রবেশ করেছিল তা জানতে শুরু হয় তদন্ত। আর সেই সময়ই আন্তর্জাতিক সীমা রেখা সংলগ্ন এলাকায় সন্ধান পাওয়া যায় একটি সুরঙ্গ। যেটির অন্যু প্রান্তটি পাকিস্তানে রয়েছে বলেও দাবি করা হয়ে ভারতের পক্ষ থেকে। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খুলেনি ভারত। 

মন কি বাত অনুষ্ঠানে বাংলায় কবিতা বললেন নরেন্দ্র মোদী, ঋষি অরবিন্দ থেকে গুরু নানককে স্মরণ করেন তিনি ...

কৃষক বিক্ষোভের মধ্যেই নতুন আইনের পক্ষে সওয়াল প্রধানমন্ত্রীর, সঙ্গে দিলেন উদাহরণও ...

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিএসএফ কর্তার দাবি সীমান্ত এলাকা দিয়ে অনুপ্রবেশকারীদের অস্ত্র সাহায্যের মরিয়া প্রয়াস চালাচ্ছে পাকিস্তান। সীমান্তে নজরদারী কড়া হওয়ায় সুড়ঙ্গ পথ খুঁড়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে পাক জঙ্গিরা। আর ড্রোনের সাহায্যে তাদের হাতে অস্ত্র পৌঁছে দিতে উদ্যোগী হয়েছে সংশ্লিষ্টরা। কাশ্মীর সীমান্তে প্রচুর পরিমাণে সেনাবাহিনী ও কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। সীমান্ত সুরক্ষায় রীতিমত তৎপর তারা। সেই কারণেই জম্মু সীমান্তে পাকিস্তান তৎপরতা বাড়াচ্ছে বলেও ইঙ্গিত  দিয়েছেন তিনি।