ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে করোনা সংক্রমণের ঘটনা। এখনও পর্যন্ত এই দেশে কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত ১৪৭ জনের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। মারণ ভাইরাস ইতিমধ্যে প্রাণ কেড়েছে ৩ জনের। এবার ভারতীয় সেনার অন্দরেও থাবা বসাল নভেল করোনা ভাইরাস। লেহতে কর্মরত এক ভারতীয় জওয়ানের শরীরে মিলল এই মারণ ভাইরাসের অস্তিত্ব।

লাদাখের বাসিন্দা ওই জওয়ান ভারতীয় সেনার ল্যান্স নায়ক পদে কর্মরত রয়েছেন। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে তাঁকে লাদাখ হার্ট ফাউন্ডেশনের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ১৬ মার্চ তাঁর সোয়াব পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

আরও পড়ুন: পরীক্ষার ত্রুটির মাশুল গুনছে ইমরানের দেশ, একলাফে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২৩৭

লেহ-লাদাখের চুহট গ্রামের বাসিন্দা ওই জওয়ান ২৫ ফেব্রুয়ারি ছুটি বাড়ি যান। গত ২০ ফেব্রুয়ারি তীর্থ করে ইরাণ থেকে দেশে ফেরেন তাঁর বাবা। এই ব্যক্তির শরীরেও পরে কোভিড-১৯এর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। বাবা ও পরিবারের সংস্পর্শে এসে ওই জওয়ানের শরীরেও করোনা সংক্রমণ ঘটেছে। জওয়ানেপ স্ত্রী, বোন ও সন্তানদের আপাতত এন এন এম হার্ট ফাউন্ডেশেন কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সব মিলিয়ে এখন লাদাখে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ জন। 

এই পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রমণ নিয়ে প্রথনম থেকেই সতর্ক রয়েছে ভারতীয় সেনা। দেশজুড়ে সেনার সমস্ত ট্রেনিং ও নিয়োগ আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। 

আরও পড়ুন: শহরে প্রথম করোনা রোগীর শরীরে নেই কোনও উপসর্গ, খোঁজ শুরু হল আক্রান্ত তরুণের সহযাত্রীদের

এদিকে বুধবার মহারাষ্ট্রে আরও এক মহিলার শরীরে মিলল কোভিড-১৯ ভাইরাসের অস্তিত্ব। সম্প্রতি ২৮ বছরের ওই তরুণী ফ্রান্স ও নেদারল্যান্ড সফর করে ফেরেন। ফলে বর্তমানে মহারাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণের ঘটনা বেড়ে দাঁড়াল ৪২।