টানা কয়েকদিনের ভারী বর্ষণের ফলে মুম্বইতে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৪০ জনের। কিন্তু বর্ষার কবল থেকে এখনও মুক্তি পায়নি বাণিজ্য নগরী। আবহাওয়া দফতর সূত্রে ফের ভারী বর্ষণের সতর্কতা জারি করা হল। ভারতীয় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, মুম্বই ও দক্ষিণ কোঙ্কন উপকূলে আজ ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

পাশাপাশি রায়গড়, থানে এবং পালগড়-এ ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের সতর্কতা জারি করা হয়েছে আবহাওয়া দফতরের তরফ থেকে। সেইসঙ্গে আগামী শুক্রবার পর্যন্ত সিন্ধদূর্গ এবং রত্নগিরিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানা গিয়েছে। আবহাওয়া দফতর আরও জানিয়েছে যে,বৃষ্টির কারণে আরব সাগরে ঘণ্টায় ৪০-৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি প্রবল জলেচ্ছ্বাসের জেরে সমুদ্র থাকবে উত্তাল। আর সেই কারণেই আগামী শুক্রবার পর্যন্ত মৎসজীবীদের সাগরে যাওয়ার ওপর জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। 

প্রবল বৃষ্টিপাতের জেরে সোমবার ঘাটকোপার, কাঞ্জুরমার্গ, সিওন-সহ একাধিক এলাকা এদিন ছিল জলমগ্ন। প্রবল বৃষ্টিতে জল জমে গিয়ে ব্যহত হচ্ছে রেল পরিষেবা। তবে সড়কপথে ট্রাফিক ধীর গতিতে সরলেও খআনিকটা স্বাভাবিক রয়েছে বলা চলে। তবে বান্দ্রা, সান্তাক্রুজ, ভলে পার্লে-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায় জল জমার কারণে এদিন যান চলাচল খানিকটা কার্যত বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল। বিমান পরিষেবা বাতিল না করা হলেও ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে বিমানের গতিপথ পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছিল।