মধ্যপ্রদেশের সন্ত্রাসবাদ বিরোধী বাহিনীর তরফে গ্রেফতার করা হল পাঁচ অভিযুক্তকে। সূত্রের খবর অনুসারে, অভিযুক্ত ওই পাঁচজনের ওপর পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদ তহবিলে টাকা জোগান দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদেশের সাতনা জেলা থেকে ওই পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। 

অভিযুক্ত পাঁচজনের মধ্যে একজনের নাম হল বলরাম সিং। এই বলরাম সিংকে এর আগে ২০১৭ সালে এই একই কারণে গ্রেফতার করেছিল সন্ত্রাসবিরোধী বাহিনী। সূত্রের খবর,  এই পাঁচ অভিযুক্তের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ১৩টি পাকিস্তানি সিম কার্ড। অভিযুক্তরা সাতনা থেকেই তাঁদের র‍্যাকেট চালাত বলে জানা গিয়েছে। তবে শুধু মধ্যপ্রদেশই নয়, দেশের একাধিক রাজ্য যেমন, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খণ্ড এবং ছত্তিশগড় থেকেও তারা এই দুর্নীতি চালাত বলে খবর। 

আরও পড়ুন- ব্যবসার জন্য ঋণ দেয়নি ব্যাঙ্ক, কিডনি বিক্রির বিজ্ঞাপন দিলেন গম-চাষি

আরও বলুন- মার্কিন অনুষ্ঠানে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেননি, জগন্মোহন রেড্ডিকে 'হিন্দুবিরোধী' তকমা বিজেপির

সাতনার পুলিশ সুপার পাঁচজনের গ্রেফতারির খবরটি নিশ্চিত করলেও বাকিদের পরিচয় প্রকাশ করেননি। সাতনার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাঁদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে, গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে তিনজনের নাম সুনীল সিং, শুভম তিওয়ারি, ভগবেন্দর সিং। এর আগে বলরাম সিং একাধিক কারণে পুলিশের জালে ধরা পড়লেও, নানাভাবে জামিনে মুক্ত হয়ে গিয়েছিল সে।