সিনেমার জন্য সেট তৈরি করা হয়েছিল। ফিল্মের সেই সেটে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে গেল। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আগুন গ্রাস করে করে নেয় গোরেগাঁয়ের একটি স্টুডিওতে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। যদিও, দমকলের ৬টি ইঞ্জিন ছাড়াও জলের আরও দুটি ট্যাঙ্কারের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনার জেরে আগুন আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। বেআইনিভাবে নির্মাণের কারনে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন-'এবার জায়গা ছেড়ে দেওয়ার পালা' এই মন্তব্য করে কী বোঝাতে চাইলেন মুকুল রায়

জানাগেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্য়ায় পশ্চিম মুম্বইয়ের গোরেগাঁও এলাকায় একটি স্টুডিও আগুন লাগে। সিনেমার শ্যুটিংয়ের জন্য এই সেটতি তৈরি করা হয়েছিলয। ওই স্টুডিওতে আচমকা আগুন লাগার ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। সংবাদ সংস্থা থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, এদিন বিকেল সাড়ে চারটা নাগাদ ওই স্টুডিওতে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ঘটনাস্ছলে পৌঁছায় দমকলের ৬টি ইঞ্জিন। এছাড়াও, আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য ব্যবহার করা হয় আরও ৫টি জলের ট্যাঙ্ক। প্রায় ঘণ্টা খানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। 
আরও পড়ুন-'রাজ্য রাজনীতির প্রধান শক্তি অভিষেক, তাই আক্রমণ বিজেপির', শুভেন্দুর 'ভাইপো' কটাক্ষের জবাব পার্থর

অগ্নিকাণ্ডের জেরে হতাহতের কোনও খবর নেই। যে স্টুডিওতে আগুন লেগেছিল, সেটি সরকারি নিয়ম মেনে তৈরি হয়নি বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, বহুতল নির্মাণের সময় অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থায় কোনও গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। সূত্রের খবর, 'আদিপুরুষ'নামে একটি নাটকের জন্য রিহারশেল চলছিল। সেই সময় আগুন লাগে ওই স্টুডিওতে। শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে বলে প্রাথমিক অনুমান দমদলের। সঠিক সময়ে দমকল না পৌঁছালে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা ছিল বলে জানিয়েছে দমকলবাহিনী।