প্রেসিডেন্ট হিসাবে প্রথমবার ভারত সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সঙ্গে থাকছেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। হোয়াইট হাউস সূত্রে আগেই বিবৃতিতে সেকথা জানানো হয়েছে। সফর নিয়ে নিজের উচ্ছাস চেপে রাখছেন না স্বয়ং ট্রাম্পও। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি দুপুরে আহমেদাবাদ এসে পৌঁছবেন ট্রাম্প। সেদিনই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় স্টেডিয়াম মোতেরাতে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন ট্রাম্প। হাউডি মোদীর আদলে এই অনুষ্ঠানে ৬০ থেকে ৭০ লক্ষ লোক হবে বলে আশাবাদী স্বয়ং মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

আরও পড়ুন: প্রশ্নপত্র ফাঁসের 'হ্যাটট্রিক', এবার পরীক্ষা শুরুর আগেই হোয়াটসঅ্যাপে মিলল ভূগোলের পেপার 

 

 

সোমবার রাতেই রাজধানী দিল্লিতে আসবেন ট্রাম্প। সেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে হবে তাঁর বৈঠক। মঙ্গলবার সকালে রাষ্ট্রপতিভবনে প্রটোকল মেনে অভিবাদন জানানো হবে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে। সেদিনই দিল্লিতে মার্কিন দূতাবাসে ভারতীয় শিল্পপতিদের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের। সূত্রের খবর, স্বামী যখন ব্যস্ত থাকবেন বৈঠকে তখন দিল্লির সরকারি স্কুল পরিদর্শনে যাবেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। দক্ষিণ দিল্লির এক সরকারি স্কুলে বিশেষ অতিথি হয়ে মেলানিয়ার যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ঘণ্টাখানেক সেখানে থাকতেও পারেন মার্কিন ফার্স্টলেডি। সময় কাটাবেন স্কুল পড়ুয়াদের সঙ্গে। 

আরও পড়ুন: প্রতিযোগী দলের খেলোয়াড়ের পুরুষাঙ্গে কামড়, ৫ বছরের জন্য সাসপেন্ড ফুটবলার

 

 এই প্রথম আমেরিকার কোনও ফার্স্ট লেডি দিল্লির সরকারি স্কুলে আসছেন। ইতিমধ্যে রাজধানীতে তার তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে। শোনাযাচ্ছে সরকারি স্কুলে মেলানিয়াকে স্বাগত জানাতে স্বয়ং উপস্থিত থাকতে পারেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সদ্য বিধানসভা ভোটে জিতে তৃতীয়বারের জন্য দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন কেজরি। তার আমলে দিল্লির সরকারি স্কুলগুলিতে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে বলে দাবি করে আম আদমি পার্টি। বছর দুয়েক আগে দিল্লির সরকারি স্কুলগুলিতে হ্যাপিনেজ ক্লাস চালু করেছিল আপ সরকার। লক্ষ্য ছিল পড়ুয়াদের মানসিক চাপ কাটানো। সেই হ্যাপিনেস ক্লাসও দেখতে পারেন ট্রাম্প ঘরণী। 

আরও পড়ুন: উত্তম কুমার পুরস্কার আর পাওয়া হল না, নিভৃতেই চলে গেলেন মহানায়কের সহঅভিনেতা

সম্প্রতি দিল্লি বিধানসভা ভোটে বিজেপিকে হারিয়ে ফের ক্ষমতায় এসেছে কেজিরওয়ালের দল। এদিকে ভোটপ্রচারে রাজধানীর সরকারি স্কুলগুলির হাল নিয়ে বিজেপির সঙ্গে আম আদমি পার্টির তরজা চরমে পৌঁচেছিল। ভিডিও প্রকাশ করে দিল্লির সরকারি স্কুলগুলির বেহাল দশা তুলে ধরার চেষ্টা করেছিল বিজেপি। তবে কেজরিওয়ালের দল সেই অভিযোগ খারিজ করে। সেই বিতর্ক না মিটতেই মার্কিন ফার্স্ট লেডির দিল্লির সরকারি স্কুলে ভ্রমণ এক নতুন মাত্রা যোগ করছে বলাই বাহুল্য।