২০২০ সালের ১ জানুয়ারিই সরকারিভাবে গগনযান অভিযানের কথা ঘোষণা করেন ইসরোর চেয়ারম্য়ান কে শিবন। এই অভিযানে প্রথমবার মহাকাশে মানুষ পাঠাবে ভারত। সেই অভিযানের প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে। মঙ্গলবার প্রকাশ করা হল মহাকাশে থাকার সময় ভারতীয় মহাকাশচারীরা কী খাবেন, কীই বা পান করবেন।   

আপাতত, ভারতীয় মহাকাশচারীদের জন্য তৈরি খাদ্য তালিকায় রয়েছে এগরোল, ভেজরোল, ইডলি, মুগ ডালের হালুয়া এবং ভেজ পোলাও। সেই সঙ্গে মহাকাশে তাঁদের দেওয়া হবে খাওয়ার গরম করার ফুড হিটার। প্যাকেটবন্দী এগরোল, ইডলি, বা পোলাও নভোশ্চররা সেই হিটারে গরম করে খেতে পারবেন।

তবে, মহাকাশে অভিকর্ষ বল বা গ্র্যাভিটি না থাকায় জল বা অন্য কোনও পানীয় গ্রহণ করাটা অত্যন্ত সমস্য়ার। টিনটিন-এর কমিকস যাঁরা পড়েছেন তাঁদের মনে থাকবে, ক্যাপ্টেন হ্যাডকের মহাকাশে হুইস্কি খেতে গিয়ে কী অবস্থা হয়েছিল। গ্লাসে থাকা হুইস্কি বল হয়ে উড়ে গিয়েছিল। ভারতীয় নভোশ্চরদের যাতে সেই দশা না হয়, সেই কারণে জল বা ফলের রসের মতো পানীয় গ্রহণের জন্য বিশেষ পাত্র তৈরি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন - ভাষা বিতর্কে ইসরোর অভিযান, হিন্দি-সংস্কৃত ধন্দের মধ্যেই প্রশ্ন কেন নয় তামিল-কন্নড়

আরও পড়ুন - চন্দ্রযান-৩, গগনযান-এর সঙ্গে আরও এক চমক, প্রথম দিনই শিবন বোঝালেন এটা ইসরো-র বছর

আরও দেখুন - এবার মহাকাশ থেকে সেনার নজরদারি, জোড়া মাইলফলক ছুঁয়ে ইতিহাসে ইসরো

আরও পড়ুন - বালাজির আশীর্বাদে আরও এক সাফল্য, মহাকাশে 'গুপ্তচর' পাঠালো ইসরো, দেখুন

আর এই বিশেষ উপায়ে তৈরি খাদ্য ও পানীয়ের পাত্র-এর সবটাই তৈরি করেছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা বিভাগ। আরও বিশদে বললে মাইসোরে অবস্থিত ডিফেন্স ফুড রিসার্চ ল্যাবরেটরি।

১ জানুয়ারি, সাংবাদিক বৈঠক করে কে শিবন জানিয়েছিলেন, গগনযান অভিযানের জন্য ভারতীয় বায়ুসেনার চার সদস্যকে বাছাই করা হয়েছে। তাঁদের এইবার রাশিয়ায় নিয়ে গিয়ে মহাকাশযাত্রার জন্য তৈরি করা হবে। এরপরই মঙ্গলবার তাদের খাদ্য-পানীয়ের তথ্য প্রকাশ করা হল। কাজেই বোঝাই যাচ্ছে শিবন-এর দাবি মতো সত্যিই বছরটা হতে চলেছে গগনযান অভিযানের।