এক ধাক্কায় ভারতের সম্ভাব্য জিডিপি বৃদ্ধি কমাল মার্কিন রেটিং সংস্থা মুডিজ ইনভেস্টার্স সার্ভিস। প্রথমে ৫.৮ শতাংশ অনুমান করলেও পরে তা ৫.৬শতাংশ হয়। ফলত, ৭.৪ থেকে ৫.৮ শতাংশে নেমে এসেছে এই জিডিপি গ্রোথ। মুডিজ-এর মতে, ২০২০ সালে এই হার ৬.৬ শতাংশ এবং ২০২১ সালে তা ৬.৭ শতাংশ হতে পারে। 

গত কয়েক বছরে রাজনীতির মূল কাঠি ছিল রাফায়েল, টাইমলাইনে সেই বিতর্কের আগুন

প্রসঙ্গত, গত কয়েক মাস ধরে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার কম দেখাচ্ছে। ২০১৮ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে ভারতে আর্থিক বৃদ্ধি ধীরগতিতে হতে থাকে। ৮ থেকে তাই পাঁচ শতাংশে নেমেছে আসে জিডিপি বৃদ্ধি। দোসর হয় বেকারত্ব বৃদ্ধি। বাজারে চাহিদা কম থাকায় কারখানায় উৎপাদন হ্রাস এবং বিভিন্ন সেক্টরের বেহাল অবস্থাও এর অন্যতম কারণ বলে মনে করা হচ্ছে।

ভবিষ্যতে আরও সতর্ক হওয়া প্রয়োজন, রাহুল গান্ধীকে ভর্ৎসনা সুপ্রিম কোর্টের

তবে মুডিজ-এর মতে, ২০১৯-২০ আর্থিক বর্ষ থেকে অবস্থার কিছুটা উন্নতি হতে পারে ২০২০ সালে। ২০২০ এবং ২১ দুই বছরেই জিডিপি বৃদ্ধি পেতে পারে। এবং তা যথাক্রমে ৬.৬শতাংশ এবং ৬.৭ শতাংশ হতে পারে।

কবে থেকে শুরু হবে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ, উঠে আসছে এই পুণ্য তিথি

এর আগে মুডিজ জানায়, সরকারের গৃহীত নীতি বাস্তবে সেইভাবে কার্যকর না হওয়ায় সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। অন্যদিকে রয়েছে ঋণের বোঝাও। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের পদক্ষেপে এই অবস্থার পরিবর্তন হলেও তাতে সময় লাগবে।