ছাত্র-ছাত্রীদের জীবনে তাদের শিক্ষাগুরুদের বিশেষ ভূমিকা থাকে। কিন্তু অবাককাণ্ড এমনি এক শিক্ষাগুরুর বিরুদ্ধে উঠল ছাত্রীর উপর হামলা চালানোর অভিযোগ। ঘটনাস্থল বাণিজ্যনগরী মুম্বই।

আর কেউ নন স্কুলের প্রিন্সিপালের দিকেই অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছেন ওই ছাত্রী। মুম্বই শহরতলীর কাঞ্জুমার্গ এলাকার এই ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছে সকলকেই। আক্রান্ত ছাত্রী ইতিমধ্যে পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেছে। অভিযোগপত্রে স্কুলের এক শিক্ষকা এবং দুই কর্মচারীর নামও উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : সিএএ ও এনআরসি নিয়ে দেশজুড়ে প্রতিবাদের মাঝেই মন্ত্রিসভায় পাশ এনপিআর, রূপায়ণে খরচ ৮,৫০০ কোটি

গত রবিবার প্রাতভ্রমণে বেরিয়েছিলেন ওই ছাত্রী। সেই সময় তার উপর হামলা চালান হয় বলে অভিযোগ। ছাত্রীর কথায়, 'সকাল ছটা নাগাদ আমি প্রাতভ্রমণে বেরোই। আমি দেখতে পাই আমার প্রাক্তন চার শিক্ষিকা কলোনি গেটের কাছে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। এরপরেই শিক্ষিকার আমকে জাপটে ধরে এবং প্রধানশিক্ষাকা আমার দিকে তরল কিছু ছুঁড়ে মারে। প্রধানশিক্ষিকা আমার ছোট ভাই ও বোনের উপরও হামলার হুমকি দেন। এরপর গাড়িতে উঠে চলে যান তারা।'

আরও পড়ুন : কংগ্রেস শাসিত রাজ্যে সরকারি ভাবে সিএএ-এনআরসি নয়, রাহুলের প্রশংসা করে আবদার প্রশান্তের

আক্রান্ত কিশোরীর মায়ের অভিযোগ, তার মেয়ের বুক ও পা লক্ষ্য করে অ্যাসিড ছোঁড়া হয়। ফোনে মেয়ের কথা শুনে সঙ্গে সঙ্গে তার কাছে ছুটে আসেন মা। ঘাটকোপার রাজাওয়াদি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয় তাকে। তবে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয় ছাত্রীকে।

মাহিমের একটি কলেজে ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়ছে ওই ছাত্রী। তার মায়ের অভিযোগ দশম শ্রেণিতে থাকাকালীন ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ তুলেছিল মেয়ে। সেই কারণেই বদলা নিতে এই হামলা চালান হয়েছে।