প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দু'দিনের বিদেশ সফরে গিয়েছেন ফ্রান্স। সেখানে গিয়ে শুক্রবার ইউনেস্কোর সদর দফতরে গিয়ে ফ্রান্সে বসবাসকারী প্রবাসী ভারতীয়দের উদ্দেশে ভাষণ দিলেন তিনি। সেখানে গিয়ে ভারত ও ফ্রান্সের বন্ধুত্বের নীতিকে বড় করে তুলে ধরলেন নমো। প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্যারিসে এসে মনে হচ্ছে যেন 'মিনি ইন্ডিয়া' , যার অর্থ কিছু দিনের মধ্যেই এখানে 'গণপতি বাপ্পা মোরিয়া' শুনতে পাওয়া যাবে। 

চলতি বছরে এই রাজ্যে নিখোঁজ প্রায় দু'হাজার মহিলা, অধিকাংশেরই কোনও হদিশ পায়নি পুলিশ

ফ্রান্সের অনাবাসী ভারতীয়দের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত এবং ফ্রান্সের সম্পর্ক কয়েকশো বছরের পুরনো। দুই দেশের সম্পর্ক স্বার্থপরতার ওপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠে নি বরং স্বাধীনতা, সাম্য এবং ভ্রাতৃত্বের আদর্শের ওপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে। সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ভারত এখন উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে। চলতি বছর লোকসভা নির্বাচনের পর যে দায়িত্ব আমরা পেয়েছি সেই দায়িত্ব কেবল কোনও সরকার পরিচালন র জন্য নয়, বরং নতুন ভারত গড়ে তোলার জন্য। 

স্মৃতি সৌধের পর বাদ গেল না পশুও, প্রেম জাহির করতে গণ্ডারের গায়ে লেখা হল যুগলের নাম

 

ফ্র্যান্সের মাটিতে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, নয়া ভারতে দুর্নীতি, পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতি, সাধারণ মানুষের অর্থ লুঠ, সন্ত্রাসবাদ দমনের বিষয়ে যে যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে তা আগে কখনও হয়নি। নতুন সরকার ক্ষমতায় আসার পর কেন্দ্রের তরফে অনেক কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানান মোদী। 

লাগাতার কমছে টাকার দাম, বিপাকে দেশের অর্থনীতি

তিন তালাক আইন পর্যালোচনা করে দেখবে সুপ্রিম কোর্ট, কেন্দ্রকে নোটিশ শীর্ষ আদালতের

এখানেই শেষ নয়, জলবায়ু পরিবর্তন নিয়েও এদিন বার্তা দেন নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে জলবায়ু পরিবর্তনের যে চ্যালেঞ্জ দেওয়া হয়েছে তার আগেই অর্থাৎ আগামী দেড় বছরেই সেই লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে যাবে ভারত।