ঐতিহাসিক স্মৃতি সৌধ সম্বলিত কোনও স্থানে ভ্রমণ করতে গিয়ে একটা বিষয় প্রায়শই চোখে পড়ে তা হল, ঐতিহাসিক স্মৃতিসৌধের গায়ে লেখা নাম। না,কোনও রাজা-মহারাজার নাম নয়। টিনা-পল্টু-মুন্নি-রাজা গোছের এক ঝাঁক নাম চোখে পড়ে। প্রেমিক প্রেমিকার নিজের প্রেম জাহির করতে কপোত কপোতি নিজের নাম খোদাই করে রাখে বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্মৃতিস্তম্ভে। কিন্তু এবার এই অত্যাচারের হাত থেকে পার পেল না বনের পশুও। 

 

চলতি বছরে এই রাজ্যে নিখোঁজ প্রায় দু'হাজার মহিলা, অধিকাংশেরই কোনও হদিশ পায়নি পুলিশ

ভালবাসা জাহির করতে গণ্ডারের পিঠে নাম লিখল এক যুগল। ঘটনাটি ঘটেছে, ফ্রান্সের অত্যন্ত জনপ্রিয় জু দেঁ লা পালমিরে চিড়িয়াখানা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে, কেউ চিড়িয়াখানার এক ৩৫ বছর বয়স্ক এক গণ্ডারের পিঠে ক্যামিলি এবং জুলিয়েন এই নামদুটি লিখে রেখে গিয়েছে। চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে নখের আছড়ে গণ্ডারের পিঠে ওই নামদুটি লেখা হয়েছে। 

তিন তালাক আইন পর্যালোচনা করে দেখবে সুপ্রিম কোর্ট, কেন্দ্রকে নোটিশ শীর্ষ আদালতের

দ্বিপাক্ষিক আলোচনাই সমস্যার সমাধান, কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের পাশে ফ্রান্স

লাগাতার কমছে টাকার দাম, বিপাকে দেশের অর্থনীতি

এই ঘটনার পর জু দেঁ লা পালমিরে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে তাদের ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করে বলা হয়েছে যে, যে বা যারা এই কাজ করেছে তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। তবে সেখানে আরও বলা হয়েছে যে, ব্লাশের সাহায্যে ঘষে গণ্ডারের পিঠ থেকে সেই দাগ তুলে ফেলা সম্ভব হয়েছে, এবং যাতে প্রাণীটির কোনও আঘাত না লাগে সেই বিষয়টিও নজরে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টটি ভাইরাল হওয়ার পর পশুপ্রেমীরাও এর তীব্র নিন্দা করেন।