২৫ শে বৈশাখ। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিন পালনে মেতে উঠল রাজ্যবাসী। সকাল থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক পোস্টে ভরে ওঠে পেজ। ১৫৮ তম জন্মদিনে কবিগুরুকে স্মরণ করে করে সকলেই প্রণাম জানান তাকে। প্রথম নোবেল পুরষ্কার ঘরে আনা থেকে শুরু করে জাতীয় সঙ্গীত। দেশের পরতে পরতে জড়িয়ে থাকা এই ব্যক্তিত্বের প্রতীভায় কুর্ণিশ জানানোর পর্ব চলে সকাল থেকে। আপামর জনগনের সেই আবেগের সূত্র ধরেই নেতা থেকে মন্ত্রী প্রণাম জানানোর তালিকা থেকে বাদ পড়লেন কেউই।

এদিন সকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শিক্ষা ও জ্ঞানের ক্ষেত্রে দেশের সর্বশ্রেষ্ঠকে তুলে ধরেছিলেন। তার বহুমুখী প্রতীভা, তার রচনা, শিল্প, দর্শণ অনবদ্য। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামেও তার বৃহৎ অবদান। তার জন্মদিনে আজ তাকে শ্রদ্ধার্ঘ্য।

অপরদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ও এই দিন টুইট করে প্রণাম জানান কবিগুরুকে। তিনি নৈবেদ্য থেকে পঙ্কক্তি তুলে লেখেন, চিত্ত যেথা ভয় শূণ্য, উচ্চ যেথা শীর... রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিনে তাকে শ্রদ্ধা ও প্রণাম।