তেলেঙ্গানায়র ভদ্রাদ্রী ও কোথাগুদেম জেলার বনাঞ্চলে পুলিশের এনকাউন্টারে এক মাওবাদী নেতার মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে এল। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষেই  ওই মাও-নেতার মৃত্যু হয়েছে বলেই প্রাথমিক সূত্রে খবর। 

পুলিশ সূত্রে খবর, নিহত জঙ্গিনেতার নাম লিঙ্গান্না। চল্লিশ বছর বয়সী লিঙ্গান্না 'লিঙ্গান্না দলম' নামে একটি মাওবাদী গোষ্ঠীর নেতা ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর বুধবার সকাল ৬টা নাগাদ। সেই সময়ে ভদ্রাদ্রী ও কোথাগুদেম জেলার রোলাগাড্ডা জঙ্গলর বনাঞ্চলে পুলিশি অভিযানের সময়ে ওই মাও সংগঠনের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরে ওই মাওবাদী দলের নেতা এনকাউন্টারে মারা যায় বলে খবর।

নিহত ওসামা বিন লাদেন-পুত্র হামজা, রিপোর্ট দিল হোয়াইট হাউস 

বেশ কয়েক রাউন্ড সংঘর্ষের পর বাকি মাওবাদীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় বলে খবর। তারপর ঘটনস্থলে পৌঁছে পুলিশ গিয়ে নিহত নেতার দেহ উদ্ধার করে বলে জানা গিয়েছে। পরে  অবশ্য আরও পাঁচ মাও-সদস্য পুলিশের জালে ধরা পড়েছে বলে খবর। পাশাপাশি পুলিশ চেকিং চলাকালীন চেলরা অঞ্চলের কাছে এক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে দেখে সন্দেহ হয় পুলিশে। আর তারপরই ৪২ বছরের মাও নেতা এম নাগারাজুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদিন ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একাধিক আগ্নেয়াস্ত্র।