২০ মার্চ ফাঁসি হওয়ার কথা নির্ভয়া কাণ্ডের চার অপরাধী মুকেশ সিং, পবন গুপ্তা, অক্ষয় ঠাকুর ও বিনয় শর্মার। তার আগেই ফাঁসি পিছনোর চেষ্টায় এবার ময়দানে নামল অন্যতম অপরাধী অক্ষয় ঠাকুরের স্ত্রী।  স্বামীর ফাঁসির আগেই তার ডিভোর্স চাই। এই মর্মে বিহারের অওরঙ্গাবাদের একটি স্থানীয় আদালতে  আবেদন করলেন অক্ষয়ের স্ত্রী পুনিতা।

নির্ভয়ার দোষীদের অন্যতম অক্ষয় ঠাকুর। নিজের আবেদনে সক্ষয়ের স্ত্রী পুনিতা বলেন, আগামী দিনে একজন বিধবার পরিচয়ে তিনি বাঁচতে চান না তিনি । তাই স্বামীর ফাঁসির আগেই ডিভোর্স চান পুনিতা। আগামী ১৯ মার্চ এই আবেদনের শুনানি হতে চলেছে আদালতে।

আরও পড়ুন: ফাঁসির ৩ দিন আগে নতুন নাটক নির্ভয়ার অভিযুক্তের, ঘটনার দিন দিল্লিতে ছিলাম না দাবি মুকেশের

আগামী ২০ মার্চ ভোর সাড়ে পাঁচটায় নির্ভয়ার তিন  ধর্ষকের সঙ্গে ফাঁসি হতে চলেছে অক্ষয় ঠাকুরেরও। ঠিক তার ২দিন আগে এই ডিভোর্সের আবেদন করলেন পুনিতা। তাঁর আইনজীবী মুকেশ  কুমার সিং জানান, স্বামী ধর্ষণের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় ডিভোর্স চাওয়ার অধিকার রয়েছে পুনিতার। হিন্দু বিবাহ আইনে  ১৩(২) ধারায় এই অধিকার দেওয়া হয়েছে মহিলাদের।

নিজেদের ফাঁসি পিছনোর চেষ্টায় একের পর এক কৌশল অবলম্বন করেই চলেছে নির্ভয়াকাণ্ডের ৪ অপরাধী। মঙ্গলবারই ধর্ষণকাণ্ডে অন্যতম অপরাধী মুকেশ সিং দাবি করেছে ২০১২ সালে ১৬ ডিসেম্বর ঘটনার দিন সে রাজধানীতেই ছিল না। সেই কারণে দিল্লির আদালতে নিজের মৃত্যুদণ্ড স্থগিতের আবেদন করেছে সে।

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ এবার ভারতীয় সেনার অন্দরে, লেহতে মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন জওয়ান

গত সোমবারই ফাঁসি এড়াতে নির্ভয়াকাণ্ডে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত  পবন, অক্ষয় ও বিনয় শর্মা আন্তর্জাতিক আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। তার পর দিনই দিল্লির আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে মুকেশ। অওরঙ্গাবাদে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করেছে অক্ষয়ের স্ত্রী।