Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Omicron: ওমিক্রন কি করোনা মহামারির শেষ ধাপ, প্রশ্ন তুলে দিলেন বিশেষজ্ঞরা

কোভিড ১৯ মহামারি বর্তমানে স্থানীয় হয়ে গিয়েছে। এটি মহামারির শেষ পর্যায় হতে পারে বলেও স্বস্তির বার্তা শুনিয়েছেন

omicron probably indicates covid is now endemic experts say on this new coronavirus variant bsm
Author
Kolkata, First Published Nov 30, 2021, 2:27 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

নতুন কোভিড (Covid 19) ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন (Omicron)-এর চিত্র এখনও স্পষ্ট নয়। আক্রান্তদের পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে। নমুনাগুলি বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত পাওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে ভারতের এক বিজ্ঞানী ও বিশেষজ্ঞরা করোনার নতুন রূপের প্রভাব সম্পর্কে সম্ভাব্য মাত্রা নির্ধারণ করেছেন। ভারতের এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের নতুন রূপের সন্ধান পাওয়া যায়নি। এই অবস্থায় কর্ণাটকে সোমবার ৬৩ বছেরে এক ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। যার দক্ষিণ আফ্রিকা (South Africa) ভ্রমণের পূর্ব ইতিহাস রয়েছে। তাই সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের কথায় করোনার নতুন রূপ ওমিক্রনের সঙ্গে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের মিল খুবই কম। বিশেষজ্ঞরা ওমিক্রন সম্পর্কে তিনটি তথ্য পেয়েছেন যা থেকে এই রূপের চিত্র অনুমান করছেন তাঁরা। 

দ্রুত সংক্রমণ ছড়ায়
ইমিউনোলজিস্ট সত্যজিত রথ সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেছেন যে করোনার এই রূপটি দ্রুত সংক্রমিত করতে পারে। পাবলিক পলিসি বিশেষজ্ঞ চন্দ্রকান্ত লাহারিয়া বলেছেন ওমিক্রনের প্রায় ৫০টি মিউটেশন রয়েছে। যা সম্ভাব্যরূপটিকে দ্রুত সংক্রমণ যোগ্য করে তোলে। ৫০টি মিউটেশনের মধ্যে ৩২টি স্পাইক প্রোটিন রয়েছে যা মানুষের কোষে প্রবেশ করতে পারে। 

ওমিক্রন মারাত্ম নয় 
বিশেষজ্ঞ সত্যজিত রথ জানিয়েছে করোনার এই নতুন রূপটি আরও গুরুতর কোনও রোগের কারণ হবে না। নতুন বিকল্পিক দ্বারা ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা হ্রাস পেতে পারে। তবে সেগুলি ভ্যারিয়েন্ট দ্বারা অকার্যকর হবে না। 

সম্ভাব্য ইঙ্গিত কোভিড স্থানীয় হয়ে গেছে
বিশেষজ্ঞ শেখর সি মান্ডে সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেছেন নতুন রূপ ও পরিস্থিতি মোটেও উদ্বেগজনক নয়। এটি ইঙ্গিত দেয় যে কোভিড ১৯ মহামারি বর্তমানে স্থানীয় হয়ে গিয়েছে। এটি মহামারির শেষ পর্যায় হতে পারে বলেও স্বস্তির বার্তা শুনিয়েছেন তিনি। তিনি আরও বলেছেন আপনি যদি সমস্ত সংক্রামণের রোগের ইতিহাস দেখেন তাহলে লক্ষ্য করবেন সেটি ধীরে ধীরে ভাইরাল রোগে পরিণত হয়ে। প্রথমে মহামারি তৈরি করলেও পরবর্তীকালে শক্তি হারিয়ে সেটি ভাইরাল রোগে পরিণত হয়। যা স্থানীয়ভাবেই সংক্রমণে ঘটাতে পারে। এন্ডেমিক মানে রোগটি প্রতিবছরই আসবে। কিন্তু তেমন ভয়াবহ আকার আর নেবে না। 

চলতি মাসে প্রথম করোনাভাইকাসের নতুন রূপটি চিহ্নিত করা হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। বর্তমানে আফ্রিকার দেশগুলিতে এই রূপের প্রাদুর্ভাব লক্ষ্য করা গেছে। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকারই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জানিয়েছে এই ওমক্রনের লক্ষণগুলি আলাদা। কিন্তু এটি খুব একটা মারাত্মক নয়। আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তির মত পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। অথচ প্রথম দিকে তিনি করোনাভাইরাসের নতুন রূপ নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। যদিও দক্ষিণ আফ্রিকার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জানিয়েছেন সাবধানতা অবলম্বন করা খুবই জরুরি। 

Meghalaya TMC: মেঘালয়ার তৃণমূল নেতাদের শুভেচ্ছা মমতার, দলের সভাপতি চার্লস পিনগ্রোপ

TMC: জাতীয় রাজনীতিতে কি 'একঘরে' তৃণমূল, নাম নেই ১২ সাংসদ সাসপেন্ডের যৌথ বিবৃতিতে

India vs China: মোদীর নেতৃত্বে চিনকে টক্কর ভারতের, কতটা এগিয়ে দেশ বললেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios