নবরাত্রির অনুষ্ঠানের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর নিজের রাজ্য গুজরাতের জন্য তিনটি প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। আগামী ২৪ অক্টোবর ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়য়েই  প্রকল্পগুলির উদ্বোধন করবেন বলেও জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যায়ল। যে তিনটি প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন সেগুলি হল কিষাণ সূর্যোদয় যোজনা, মোহতা ইনস্টিটিউট অফ কার্ডিওলডি অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের সঙ্গে পেডিয়াট্রিক হার্ট হাসপাতাল আর আহমেদাবাদের আহমেদাবাদের সিভিল হাসপাতালের টেলি কার্ডিওলজির জন্য মোবাইল অ্যাপলিকেশন। এদিনই তিনি গুরনার রোপওয়েরও উদ্বোধন করবেন। 

কিষাণ সূর্যদয় যোজনা
সেচের জন্য দিনের বেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানির অধীনে গুজরাত সরকার সম্প্রতি কিষাণ সূর্যোদয় যোজনা ঘোষণা করেছিলেন। এই প্রকল্পের আওতায় থাকা কৃষকরা সকাল ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহের সুবিধে পাবেন। রাজ্য সরকার ২০২৩ সালের মধ্যেই এই প্রকল্পের কাজ সম্পূর্ণ করতে চায়। এই প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ৩৫ হাজার কোটি টাকা। এই প্রকল্পের আওতায় ২৩৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ৬৬ কিলোওয়াট ট্রান্সমিশন লাইন স্থাপন করার পাশাপাশি ২২০ মেগাওয়াট সাবস্টেশন তৈরির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। 


পেডিয়াট্রিক হার্ট হাসপাতাল 
প্রধানমন্ত্রী ইউএনএন মেহতা ইনস্টিটিউট অফ কার্ডিওলজি অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের সঙ্গে যুক্ত পেডিয়াট্রিক হার্ট হাসপাতাল আর আহমেদাবাদের সিভিল হাসপাতালে টেলি কার্ডিওয়লজির জন্য মোবাইল অ্যাপলিকেশন উদ্বোধন করবেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের স্বাস্থ্য পরিষেবায় এই গুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আগামী দিনে হার্ট হাসপাতালটি বিশ্বের একটি বড় সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পরিণত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই  প্রকল্পে ব্যায় হবে ৪৭০ কোটি টাকা। আগামী দিনে হাসাতালের শয্যা সংখ্যাও ৪৫০ থেকে বাড়িয়ে ১২৫১ করা হবে। ১৪টি অপারেশন থিয়েটার তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। গোটা বাড়িটি ভূমিকম্প প্রতিহত করতে পারবে। ফায়ার ফাইটিং হাইড্রান্ট সিস্টেম থাকবে। পাশাপাশি বিশেষ গবেষণাগারও থাকবে। 

লাদাখ চিনের অংশ, এজাতীয় জিও ট্যাগ নিয়ে প্রশ্ন তুলে ট্যুইটারকে কড়া চিঠি লিখল ভারত .

প্রত্যেককে ২টো করে করোনার ইনজেকশন, প্রতিষেধক বিলিতে ভারতের বরাদ্দ কত জানেন কি .

গিরনার রোপওয়ে 
গুজরাতের পর্যটন মানচিত্রে জোর দিতে গিরনার রোপওয়ে তৈরির প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছিল। গিরনার পর্বতকে ঘিরে রোপওয়ের রাস্তাটি তৈরি হয়েছে। মাত্রী ৭ মিনিটে প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখান হবে পর্যটকদের। ২.৩ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করবে। এক একটি কেবিনে থাকবে ৮ জন যাত্রী। এজাতীয়  ২৫-৩০টি কেবিন থাকবে।