দময়ন্তী বেন মোদী, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাইজি, শনিবার সকালে তিনিই নয়াদিল্লিতে পড়েছিলেন ছিনতাইবাজদের কবলে। গত কয়েকমাস ধরেই রাজধানীতে ধীরে ধীরে ছিনতাইবাজদের দাপট বাড়ছে। পুলিশ এতদিনে কাউকেই ধরতে পারেনি। প্রধানমন্ত্রীর ভাইজির ক্ষেত্রে কিন্তু অভিযোগে ম্যাজিকের মতো কাজ দিল। ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ধরা পড়ল এক দুষ্কৃতী।

শনিবার সকালে অমৃতসর থেকে নয়াদিল্লি আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাই প্রহ্লাদ মোদীর মেয়ে দময়ন্তীবেন মোদী। বেলা ৭টা নাগাদ সিভিল লাইন এলাকায় গুজরাতি সমাজ ভবনের সামনে অটোরিক্সা থেকে নামার সময় দুই বাইক আরোহী ছিনতাইবাজ তাঁর কাছ থেকে ৫০০০০ টাকা নগদ অর্থ, দুটি মোবাইল ফোন, কিছু নথিপত্র ও আরও কিছু মূল্যবান জিনিসপত্র কেড়ে নিয়ে চম্পট দেয়।

পরে সিভিল লাইন পুলিশ স্টেশনে দময়ন্তী অভিযোগ জানান। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ দুই দুষ্কৃতীকে চিহ্নিত করে। তারপরই ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই তাদের একজনকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

এই ক্ষেত্রে পুলিশ দারুণ তৎপরতা দেখালেও, এর আগে কিন্তু দিল্লি পুলিশের এই ভূমিকা দেখা যায়নি। এর আগে গত কয়েকমাসে দুই মহিলা সাংবাদিক-সহ বেশ কয়েকজন মহিলা এই বাইকআরোহী ছিনতাইবাজদের খপ্পরে পড়েছেন। প্রতি ক্ষেত্রেই মহিলারা অটোরিক্সায় আসছিলেন। রবিবার ছিনতাই হয় মুখ্যমন্ত্রী ও গভর্নরের বাড়ির এক কিলোমিটারের মধ্যেই।