মার্কিন সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সেইকারণে প্রধানমন্ত্রীর বিমানটি পাকিস্তানের আকাশসীমা দিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেছিল ভারত। ভারতের সেই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে পাকিস্তানের তরফে। 

পাক বিদেশ মন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি একটি ভিডিওতে নিজের বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে পাকিস্তানের আকাশসীমা পেরনোর অনুমতি দেওয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফরের জন্য আগামী ২০ সেপ্টেম্বর এবং ২৮ সেপ্টেম্বর তারিখে পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুরোধ করা হয়েছিল পাকিস্তানের কাছে। এই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে শাহ মাহমুদ কুরেশি জানান, কাশ্মীরিদের ওপর ভারত যে অত্যাচার ও বর্বরতা চালাচ্ছে সেই কারণেই পাকিস্তান ভারতের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছে। 

তিনি আরও বলেন, 'আমরা মোদীকে পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তা ভারতীয় হাই কমিশনেও জানানো হয়েছে।' এর পাল্টা হিসাবে ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার জানিয়েছেন, পাকিস্তান গত দু সপ্তাহের মধ্যে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ভিভিআইপি বিশেষ বিমান পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের ছাড়পত্র দিল না, বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট খেদ প্রকাশ করা হয় ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে।

 

আরও পড়ুন- ৬৯ বছরে পা মোদীর, জন্মদিনের প্রাক্কালে ৬৯ ফুট লম্বা কেক কাটল হিন্দু সংগঠন

আরও পড়ুন- মায়ের আশীর্বাদ নিয়েই দিন শুরু, জন্মদিনে 'নমামি নর্মদা মহোৎসব'এর উদ্বোধনে নরেন্দ্র মোদী

আরও পড়ুন- মঙ্গলবার জন্মদিন নরেন্দ্র মোদীর, আসানসোলের মন্দিরে পুজো দিয়ে গেলেন যশোদা বেন

প্রসঙ্গত এর আগে, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের ইওরোপ সফরের জন্য পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল তখন তা দিতে অস্বীকার করেছিল পাকিস্তান। ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটল। পাকিস্তানের তরফে নেওয়া এই সিদ্ধান্তের জেরে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক যে খারাপ হতে পারে সেই আশঙ্কা করছে বিশেষজ্ঞ মহল।