আন্তর্জাতিক মহলে কাশ্মীরের অবস্থাকে উদ্বেগজনক দেখাতে এইবার সাইবার যুদ্ধে নেমেছে পাকিস্তান। সোশ্যাল মিডিয়ায় জম্মু কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার অত্য়াচার চালানোর ভুয়ো ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের একটি সূত্রের দাবি এই সম্পূর্ণ কর্মসূচি সফল করার জন্য পাক অধিকৃত কাশ্মীরে একটি কন্ট্রোল রুম খুলেছে পাকিস্তান।

সেখানে রীতিমতো সিনেমার শুটিং চলছে। ভারতীয় সেনার পোশাক পরে বাসিন্দাদের উপর অত্যাচারের অভিনয় করছেন পাক সেনারাই। সেই দৃশ্য তোলা হচ্ছে ক্যামেরায়। আর তারপর বিভিন্ন অ্য়াকাউন্ট ব্যবহার করে অত্যাচারের সেই ভুয়ো ভিডিও ছডি়য়ে দেওয়া হচ্ছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। সেইসব ভিডিও দেখানো হচ্ছে আন্তর্জাতিক মহলেও।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সূত্রের দাবি ভারত সরকার জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পর থেকে গত কয়েকদিনে এইরকম বহু ভুয়ো ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে বেশ কিছু রয়েছে পুরনো ভিডিও, সেই সঙ্গে নতুন ভিডিওয় ছাড়া হয়েছে। আর সেই ভিডিওগুলি পরীক্ষা করতে গিয়েই পাকিস্তানের এই ছলনা ধরা পড়েছে। ভিডিওগুলি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে তোলা হচ্ছে বলে, দেখে মনে হচ্ছে জম্মু কাষ্মীর রাজ্যের কোথাও তোলা।

ওই সূত্র আরও জানিয়েছে, এই বিষয় নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, নিরাপত্তা বাহিনী ও সাইবার টিম যথেষ্ট উদ্বিগ্ন। কারণ তারা মনে করছে এতে করে আন্তর্জাতিক মহলকে বোকা বানাতে না পারলেও এই ভিডিওগুলি থেকে নতুন করে উপত্যকায় অশান্তি ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এই বিষয়ের মোকাবিলায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে। ইতিমধ্য়েই সামরিক গোয়েন্দা, তথ্য দপ্তর, ইলেক্ট্রনিক্স ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক ও তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের আধিকারিকদের উপস্থিতিতে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়ে গিয়েছে। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে গুগল ও সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলির সঙ্গে যোগায়োগ করে ভুয়ো প্রোফালগুলি বন্ধঝ করে দেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছে।