গোটা দেশেই বাড়ছে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম। এক-দু'দিন অন্তর জ্বালানির দাম বাড়ানোর প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি। প্রতিদিনই নতুন রেকর্ড করছে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম। আজ কলকাতায় লিটার প্রতি পেট্রোল ও ডিজেলের দাম ২৮ পয়সা বেড়েছে। যার ফলে পেট্রোলের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৫ টাকা ৮০ পয়সা আর ডিজেলের দাম ৮৯ টাকা ৬০ পয়সা।    

অন্যদিকে দিল্লিতে লিটার প্রতি পেট্রোলের দাম বেড়েছে ২৯ পয়সা। যার ফলে পেট্রোলের দাম বেড়ে হয়েছে ৯৫ টাকা ৮৫ পয়সা। আর ডিজেলের দাম বেড়ে হয়েছে লিটার প্রতি ৮৬ টাকা ৭৬ পয়সা।

আরও পড়ুন- এটিএম থেকে টাকা তোলার চার্জ বাড়াল RBI, অতিরিক্ত কত দিতে হবে, জানুন

এছাড়া মুম্বইয়ে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে পেট্রোলের দাম। লিটার প্রতি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০২ টাকা ৪ পয়সা। আর ডিজেলের দাম বেড়ে হয়েছে লিটার প্রতি ৯৪ টাকা ১৫ পয়সা।

চেন্নাইতে পেট্রোলের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭ টাকা ১৯ পয়সা। আর ডিজেলের দাম ৯১ টাকা ৪২পয়সা। 

রাজস্থানে লিটার প্রতি পেট্রোলের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৬ টাকা ৯৪। আর ডিজেলের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৯ টাকা ৮০ পয়সা। 
 
করোনা পরিস্থিতির মধ্যে কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। আর এই পরিস্থিতিতে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম বাড়ার ফলে বাড়তে পারে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। তার জেরে জামাই ষষ্ঠীর আগে টান পড়তে পারে মধ্যবিত্তের পকেটে। 

এই পরিস্থিতির মধ্যে ভারসাম্য রক্ষার পরামর্শ দিয়েছেন নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমার। তাঁর বক্তব্য, "সবসময় এটা বলা হয় যে, পেট্রোল-ডিজেলের মৃল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার কিছু করুক। কিন্তু আমাদের ভারস্যমাও রক্ষা করতে হবে। সরকারের দায়িত্ব মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করা। আমি আশা করি, যাঁদের এই দায়িত্ব, তাঁরা ভারসাম্য রক্ষা করবেন।"