আগামী ২৯ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পূর্বের জন্য নতুন ভাইপুর থেকে নতুন খুর্জা বিভাগ পর্যন্ত একটি ফ্রেইড করিডোর বা ইডিএফসি উদ্বোধন করবেন। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠান হবে। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রয়াগরাজে ইডিএফসি অপারেশন কন্ট্রোল সেন্টারেরও উদ্বোধন করবেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন উত্তর প্রদেশের রাজ্যপাল আনন্দীবেন প্যাটেল ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। থাকবেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। 

ভাউপুর থেকে খুর্জা ৩৫১ কিলোমিটার বিস্তৃত ফ্রেইট করিডোর নির্মাণে খরচ হয়েছে ৫,৭৫০ কোটি টাকা। স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত শিল্পগুলি এক স্থান থেকে অন্যস্থানে পরিবহণের সুবিধের জন্য এই করিডোর তৈরি করা হয়েছে। এই করিডোরের কারণে সুবিধে পাবে কানপুর দেহাট জেলার অ্যালুমিনিয়াম শিল্প, আউরিয়া জেলার দুগ্ধ শিল্প, ইটাওয়াহ জেলার বস্ত্র শিল্প, ফিরোজাবাদ জেলার কাচ শিল্প, ও একাধিক স্থানের মৃৎ শিল্প। এই করিডোরের মাধ্যতে রেলপথ দিয়ে পরিবহন অনেকটা দ্রুত হবে। 

প্রয়াগরাজে একটি অত্যাধুনিক অপারেশন কন্ট্রোল সেন্টার উদ্বোধন করবেন মোদী। সেটি ইডিএফসি রুটের দীর্ঘতম কমান্ট স্টেন্টার হিসেবে কাজ করবে। কার্যালয়টি তৈরি হয়েছে সুগম্য ভারত অভিযানের নিয়ম বিধি মেনে। কার্যলয়টিতে চারটি গ্রিন বিল্ডিং থাকছে। 

ইডিএফসি লুধিয়ানার সাননেওয়াল থেকে শুরু করে পঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ডের মধ্যে দিয়ে এসে এই রাজ্যের ডানকুনিতে শেষ হবে। এটি ডেডিকেটেড ফ্রেইট করিডোর কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া লিমিটেড নির্মাণ করেছে। এটি পরিচালনা করার জন্য বিশেষ ব্যবস্থাও করা হয়েচে। ওয়ের্স্টান ফ্রেইট করিডোরের দৈর্ঘ্য ১৫০৪ কিলোমিটার। এটি উত্তর প্রদেশ থেকে শুরু করে মুম্বইয়ের জওহরলাল বন্দরের সঙ্গে যুক্ত হবে। হরিয়ানা, রাজস্থান ও গুজরাতের সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে এটি।