রাহুল গান্ধীকে এবার সরাসরি বিয়ে করার পরামর্শ দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও দলিত নেতা রামদাস আঠাওয়ালে। একই সঙ্গে তিনি বলেছেন রাহুল গান্ধী যদি কোনও দলিত মহিলাকে বিয়ে করেন তার জন্য তাঁর মন্ত্রক আড়ই লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্যের যে প্রকল্প রয়েছে সেই প্রকল্পের সুবিধেও দেবেন। সম্প্রতি লোকসভায় কংগ্রেস নেতা তথা ওয়াইনাডের সাংসদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে নিশানা করেন কৃষি আইন নিয়ে। তিনি বলেন এই দেশ চলছে হাম দো হামারা দো এই নীতিতে। নাম না করে তিনি মোদী ও শাহর পাশাপাশি দুই শিল্পপতি আম্বানি ও আদানিকে নিশানা করেন।


সেই সূত্র ধরেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আঠাওয়ালে এদিন নিশানা করেন রাহুল গান্ধীকে। তিনি বলেন হাম দো হামারো দো এই ইস্যুতে  পরিবার পরিকল্পনার নীতিটি যদি রাহুল গান্ধী ব্যবহার ও প্রচার করতেই চান তাহলে সবার আগে তাঁর বিয়ে করা উচিৎ। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, একটি দলিত মহিলাকে বিয়ে করলে মহাত্মা গান্ধীর বর্ণবাদ নির্মূলের স্বপ্নও পুরণ হবে। পাশাপাশি দেশের যুবসমাজকেও তা অনুপ্রাণিত করবে। আর রাহুল গান্ধী যদি দলিত মহিলার সঙ্গে বিয়ের আসরে বসেন তাহলে তাঁর মন্ত্রক থেকে আড়াই লক্ষ টাকাও দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। 

#MeToo আন্দোলনের রেশ, এমজে আকবরের দায়ের করা মামলায় মুক্ত সাংবাদিক প্রিয়া রামানি

পদুচেরিতে প্রশ্ন তুলে বিপাকে রাহুল গান্ধী, স্মৃতি ইরানি থেকে অনুরাগ ঠাকুরদের নিশানায় কংগ্রেস নেতা ...

দিন কয়েক  আগেই সংসদে দাঁড়িয়ে রাহুল গান্ধী কেন্দ্রীয় সমালোচনায় কেন্দ্রীয় সরকারকে হাম দো হামারে দো সরকার বলে তীব্র সমালোচনা করেন। তারপর থেকে বিজেপি নেতা মন্ত্রীরা রাহুল গান্ধীর সমালোচনায় সরব হয়েছেন। রাহুল গান্ধীর বক্তব্যের রেশ টেনে নির্মলা সীতারম কংগ্রেসকে জামাইয়ের খোঁটা দিয়েছিলেন। হরিয়ানার মন্ত্রী রাহুল গান্ধীর উদ্দেশ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে বলেছিলেন রাহুল জানেনন না এই স্লোগান তুলেছিলেন তাঁর ঠাকুমা ইন্দিরা গান্ধী। তারপরই তিনি বলেছিলেন বিজেপি সরকারের মূল লক্ষ্যই হল সবার সঙ্গে সবার বিকাশের জন্যই রাষ্ট্র পরিচালনা করা।